হতাশ কামরান আকমল

ঢাকা, শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৭ ফাল্গুন ১৪২৬

হতাশ কামরান আকমল

ক্রীড়া ডেস্ক ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৮, ২০২০

print
হতাশ কামরান আকমল

বাংলাদেশের বিপক্ষে পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু হচ্ছে ২৪ জানুয়ারি। অনেক নাটকের পর তিন দফায় পাকিস্তানে যাওয়ার সূচি করেছে বাংলাদেশ। আপাতত জানুয়ারিতে টি-টোয়েন্টি খেলবে দুই দল। আর এরই মাঝে টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা করেছে পাকিস্তান। সে দলে তারুণ্য ও অভিজ্ঞতার মিশেল দেখা গেলেও বাদ পড়েছে বেশ কিছু পরিচিত নাম। বাদ পড়ার হতাশা এরই মাঝে মুখ খুলতে শুরু করেছেন তাদের কেউ কেউ।

গত কয়েক বছরে পাকিস্তান দলের নিয়মিত মুখদের মাঝে ফখর জামান, মোহাম্মদ আমির, ইমাম-উল-হক, ওয়াহাব রিয়াজ, মোহাম্মদ ইরফান ও আসিফ আলী ডাক পাননি স্কোয়াডে। এদের মাঝে আমির এরই মাঝে টুইটারে বেফাঁস মন্তব্য করে বিপদে পড়েছেন। বাকিরা অন্তত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুখ খোলেননি এখনো।

তবে বিস্ময়করভাবে নিজেকে জাতীয় দলের জন্য যোগ্য দাবি করে হতাশা প্রকাশ করেছেন কামরান আকমল, ‘দুঃখ পেয়েছি, দলের জন্য বিবেচিত না হওয়ায় হৃদয় ভেঙে গেছে। আমি অনেক কষ্ট করেছি। যাই হোক, হাল ছাড়ব না। আমি আরও কঠোর পরিশ্রম করব। সবাইকে ধন্যবাদ, যারা আমাকে সমর্থন দিয়েছেন।’

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাজে সময় কাটিয়েছেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। গত কিছুদিন ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো সময় কাটানো কামরান আকমল তাই দলে ফেরার আশা করছিলেন। কিন্তু ২০১৭ সালে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলা কামরানকে ডাকা হয়নি। রিজওয়ানেই আস্থা রেখেছে পাকিস্তান। অবশ্য কামরান আকমলের দলে ফেরার আশা নিয়ে প্রশ্ন তোলা যায়। ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগে ৪ ম্যাচে ৩০ রান করেছেন আকমল।

উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান হিসেবে ৩৮ বছর বয়সী কামরানকে দলে টানার কথা ভেবে দেখেনি পাকিস্তান। তবে বর্ষীয়ান শোয়েব মালিক ও মোহাম্মদ হাফিজকে ডেকেছে তারা। দল ঘোষণার পরই এ দুজনকে তাই অভিনন্দন জানিয়েছেন আকমল, ‘বাংলাদেশ সিরিজে যারা সুযোগ পেয়েছে তাদের অভিনন্দন, হাফিজ ও মালিককে প্রত্যাবর্তনে অভিনন্দন। শুভকামনা।’

বিশ্বের এক নম্বর টি-টোয়েন্টি দল পাকিস্তান ভয়ংকর এক ২০১৯ কাটিয়েছে। বছরের ১০ ম্যাচে মাত্র একটি জয়। হেরেছে বাকি সব ম্যাচেই। শ্রীলঙ্কার প্রায় দ্বিতীয় দলের কাছে ঘরের মাঠে ধবল ধোলাই হওয়া পাকিস্তান তাদের স্কোয়াডে তাই বড় রদবদল এনেছে।