4G সাপোর্টের সাথে লঞ্চ হল Nokia 8000 4G এবং Nokia 6300 4G

ঢাকা, রবিবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১ | ৪ মাঘ ১৪২৭

4G সাপোর্টের সাথে লঞ্চ হল Nokia 8000 4G এবং Nokia 6300 4G

খোলা কাগজ ডেস্ক ১:২৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০২০

print
4G সাপোর্টের সাথে লঞ্চ হল Nokia 8000 4G এবং Nokia 6300 4G

নোকিয়া ফোন নির্মাতা HMD Global এবার 4G কানেক্টিভিটি এবং নানা মডার্ন ফিচারের সাথে ফিরিয়ে আনলো তাদের জনপ্রিয় ক্লাসিক ফোন Nokia 6300৷ এরই সাথে কোম্পানিটি Nokia 8000 4G নামেও আরেকটি ফিচার ফোন লঞ্চ করেছে৷ Nokia 8000 4G এবং Nokia 6300 4G ফোন দুটির উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্যের মধ্যে রয়েছে, কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ২১০ প্রসেসর, KaiOS সফটওয়্যার, এবং গুগল অ্যাসিট্যান্ট সাপোর্ট৷ আসুন নোকিয়া ৬৩০০ 4G ও নোকিয়া ৮০০০ 4G এর দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

Nokia 8000 4G এবং Nokia 6300 4G-এর দাম ও লভ্যতা

Nokia 8000 4G ফোনের দাম রাখা হয়েছে ৭৯ ইউরো (প্রায় ৬,৯০০ টাকা)৷ এই ফোন টোপাজ ব্লু (Topaz Blue), ওপাল হোয়াইট (Opal White), সিন্ট্রিন গোল্ড (Cintrine), এবং অনিক্স ব্ল্যাক (Onyx Black) কালার অপশানে কেনা যাবে৷

অপরদিকে Nokia 6300 4G ফোনের দাম রাখা হয়েছে ৪৯ ইউরো (প্রায় ৪,৩০০ টাকা)৷ ফোনটি লাইট চারকোল (Light Charcoal) ,সায়ান গ্রিন (Cyan Green) এবং পাওডার হোয়াইট (Powder White) রঙের বিকল্পে উপলব্ধ হবে৷

এইচএমডি গ্লোবাল জানিয়েছে, Nokia 8000 4G এবং Nokia 6300 4G ফোন দুটি নির্বাচিত কয়েকটি বাজারেই উপলব্ধ হবে৷ যদিও ঠিক কবে থেকে ফোন দুটি পাওয়া যাবে তা এখনও জানানো হয়নি। আশা করা যায় এদেরকে ভারতেও লঞ্চ করা হবে৷

Nokia 8000 4G এর স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

প্রথমেই এই ফোনের ডিজাইন প্রসঙ্গে আসা যাক৷ এই ফোনের পিছনে রয়েছে গ্লস ফিনিশ৷ যা একে প্রিমিয়াম লুক প্রদান করেছে৷ সাথে এতে ব্যবহার করা হয়েছে ২.৮ ইঞ্চি QVGA (কোয়ার্টার ভিডিও গ্রাফিক্স অ্যারে) ডিসপ্লে৷ এছাড়া ফোনটিতে পাওয়া যাবে ৫১২ এমবি র‌্যাম এবং ৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, স্ন্যাপড্রাগন ২১০ প্রসেসর, ১,৫০০ এমএইচ ব্যাটারি ও চার্জিংয়ের জন্য মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট, ৩.৫ এমএম অডিও জ্যাক, এলইডি ফ্লাশের সঙ্গে ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা এবং ওয়াই-ফাই হটস্পট সাপোর্ট৷ আবার এই ফোনে KaiOS অপারেটিং সিস্টেম থাকায় এতে হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, জিমেল, ইউটিউবের মতো অ্যাপ্লিকেশন অ্যাক্সেস করা যাবে৷

Nokia 6300 4G এবং স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

পলিকার্বনেট বডির এই ফোনে দেওয়া হয়েছে ২.৪ ইঞ্চির ডিসপ্লে৷ ফোনে থাকা ভিজিএ ক্যামেরার মাধ্যমে বেসিক কোয়ালিটির ফটো তোলা যাবে৷ Nokia 8000 4G-এর মতো এই ফোনেও রয়েছে ৫১২ এমবি র‌্যাম এবং ৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, স্ন্যাপড্রাগন ২১০ প্রসেসর, ১,৫০০ এমএইচ ব্যাটারি ও চার্জিংয়ের জন্য মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট, এলইডি ফ্লাশ, এবং ৩.৫ এমএম অডিও জ্যাক৷ ফোনটি ওয়াই-ফাই হটস্পট সাপোর্টর সাথে আসায় ইউজাররা ফোনের 4G কানেকশন অন্য ডিভাইসের সাথে শেয়ার করতে পারবেন৷ এছাড়া ফোনে KaiOS সফটওয়্যার থাকার দরুন হোয়াটসঅ্যাপ এবং ফেসবুকের মতো সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার এবং KaiStore-এ উপলব্ধ অ্যাপ্লিকেশানও ফোনে ইনস্টল করতে পারবেন৷