ব্রেভ

ঢাকা, রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ব্রেভ

ফারহিন কবির ১১:০২ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০১৯

print
ব্রেভ

মেরিডা কে চেনো? সেই যে লাল চুলের সাহসী রাজকন্যা, যে ভালোবাসে পাহাড় চড়তে, ঘোড়ার পিঠে চড়ে বনের মধ্যে ঘুরে বেড়াতে, বাবার রাজ্যের বাজারে গিয়ে হইচই করতে আর তীর-ধনুকের খেলা দেখাতে? আজকে তোমাদের সেই রাজকন্যা মেরিডার গল্প বলবো।

রাজ্যের নিয়ম-শাসন মেরিডার জীবন দুর্বিষহ করে তোলে, বিশেষ করে যখন রানী এলিনর রাজকন্যার বিয়ের ব্যবস্থা করেন। রানীর পরিকল্পনা মাফিক ‘কনে দেখার সভা’ আয়োজন করা হয়। নানান দেশ থেকে রাজপুত্ররা আসে, বীরত্ব আর যুদ্ধ কৌশল দেখিয়ে রাজকন্যার মন জয় করতে।

যখন তাদের বীরত্ব দেখিয়ে মেরিডার মন জয় করতে বলা হল, উল্টা মেরিডাই তার রণ দক্ষতা দেখিয়ে তাক লাগিয়ে দিল। অদ্ভুত এই ঘটনায় রানী এলিনর প্রচণ্ড রেগে যান, তার মনে হয়, ভরা মজলিশে মেরিডা আসলে তাকে অসম্মান করেছে। রাগের মুখে তিনি মেরিডার ধনুকটি কেড়ে নিয়ে আগুনে ছুঁড়ে ফেলেন। দুঃখে, অভিমানে মেরিডা সেই রাত্রেই রাজ্য ওর প্রিয় কালো ঘোড়া ওকে নিয়ে যায় গভীর জঙ্গলে চলে যায়। সেখানে দেখা মেলে একবুড়ি ডাইনীর। মেরিডার গল্প শুনে ডাইনী ওকে একটা জাদুর কেক দেয়। এই কেক খেলেই নাকি রানী এলিনর ‘বদলে’ যাবেন। মেরিডা প্রাসাদে ফিরে আসে। রানীকে খেতে দেয় সেই মন্তর পড়া জাদুর পিঠা। ও ভাবে, এইবার বুঝি মায়ের মন বদল হবে, মা এবার ওকে স্বাধীনতা দেবেন। কিন্তু ডাইনীর জাদুমন্ত্রে রানী এলিনরের এ কী হলো! মানুষ থেকে বদলে গিয়ে তিনি হয়ে গেলেন একটা বিশাল রোমশ ভালুক!

ওদিকে রাজা ফারগাস আর তার বাহিনী, ওরা তো ভালুকের সাড়া পেয়েই সেটাকে শিকার করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠলো। অতএব, মেরিডাকে এবার পালাতে হবে, বাঁচাতে হবে তার মা কে। এখন তাহলে কী হবে? মেরিডা কি পারবে তার ভালুক শিকারি বাবার কাছ থেকে মাকে বাঁচাতে?

সে কি পারবে ডাইনীর জাদুর মায়া ছিন্ন করে রানী এলিনরকে আবারও মানুষ রূপে ফিরিয়ে আনতে? এই গল্পের শেষটা জানতে হলে দেখে ফেলো ডিজনি পিক্সার এর মজার শিশুতোষ এনিমেশন মুভি ‘ব্রেভ’।