ঢাকা, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪ | ৮ আষাঢ় ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

যুবলীগ নেতার মদদে হয়রানির শিকার প্রবাসী পরিবার

সিলেট ব্যুরো
🕐 ৬:২৯ অপরাহ্ণ, মে ২৬, ২০২৪

যুবলীগ নেতার মদদে হয়রানির শিকার প্রবাসী পরিবার

সিলেটের দক্ষিণ সুরমার মোল্লারগাঁও ইউনিয়নের ছনুপাড়া গ্রামে জায়গা ক্রয় করে উল্টো হয়রানির শিকার হচ্ছে এক প্রবাসীর পরিবার। এতে মদদ দিচ্ছেন স্থানীয় ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা। রোববার (২৬ মে) সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন কুয়েত প্রবাসী তুরন মিয়ার স্ত্রী মমতা বেগম আলী।

 

এ সময় তিনি প্রতারক পরিবার ও মদদদাতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে স্থানীয় এমপি, রাজনীতিবিদ ও পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

লিখিত বক্তব্যে মমতা বেগম আলী জানান: তার প্রতিবেশী ও আত্মীয় ফারুক মিয়ার কাছ থেকে ২০১৯ সালে তার প্রবাসী স্বামী বাড়ির ৩ শতক জায়গা ক্রয় করেন। পরে ফারুক গ্রিসে চলে যান। ২০২১ সালে ফারুক গ্রিস থেকে তার মা কে আবার তার বাড়ির আরও ৫ শতক জায়গা বিক্রির প্রস্তাব দেন। একই সময়ে ভাসুর ইরান মিয়ার কাছেও ৫ শতক জায়গা বিক্রির প্রস্তাব দেন ফারুক। কিন্তু গত ২৮ ফেব্রুয়ারি জায়গার দলিল সম্পাদনের দিন ভাসুর ইরান মিয়াকে দলিল করে দিলেও তার স্বামীর দলিল করে দেননি ফারুকের মা। অথচ ফারুক ও তার পরিবার জায়গার বিপরীতে ৬ লাখ ৬৫ হাজার টাকা আগেই গ্রহন করেছেন। জায়গা বিক্রির টাকা পেয়ে গ্রিস থেকে ফ্রান্স চলে যান ফারুক।

মমতা জানান পরবর্তীতে দলিল করে দেওয়া প্রতিশ্রতি দিয়ে রক্ষা করেনি তারা। উল্টো আদালতে হয়রানির অভিযোগে মামলা করেন ফারুকের মা নাজমা বেগম। ফারুকের পক্ষ হয়ে গত ২১ মে রাত সাড়ে ১২টার দিকে হামলা করেন ফারুকের মা, স্ত্রী ও গ্রামের জাহেদ মিয়াসহ কয়েকজন। এ ঘটনায় তিনি দক্ষিণ সুরমা থানায় মামলা করেছেন। ফারুক শুধু তাদের সঙ্গে নয়, এলাকার অনেকের সঙ্গেই জায়গা বিক্রির নামে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নিয়ে বিদেশ চলে যান বলে দাবি করেন মমতা।

এক প্রশ্নের জবাবে মমতা জানান ফারুক বিদেশে থাকলেও তাকে মদদ দিচ্ছেন তার মামা মোল্লারগাও ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুনেদ আহমদ ও ছনুপাড়া গ্রামের জাহেদ মিয়াসহ কয়েকজন। এ কারণে তারা শিশু সন্তানদের নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। জুনেদ রাজনীতির প্রভাব দেখিয়ে নানাভাবে চাপ সৃষ্টি করছেন।

মমতা আশঙ্কা করছেন গ্রামের যারা সত্যের পক্ষে কথা বলছেন তাদের অনেককে ফারুক গংরা মিথ্যা মামলাসহ নানাভাবে হয়রানি করতে পারে। কোনো ব্যাক্তি তাদের কাছ থেকে জায়গা কিনে প্রতারণা ও হয়রানির শিকার না হন সেজন্য তিনি সবাইকে সজাগ থাকার আহবান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে মমতা বেগম আলীর স্কুল পড়ুয়া ছেলে সাজ্জাদ হোসেন, ইখতেখার হোসেন, ভাসুরের স্ত্রী ইয়াসমিন সুলতানা ও তার ছেলে মুছাদ আহমদসহ স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

 
Electronic Paper