মুখরোচক চিকেন মাশরুম বিরিয়ানি

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

মুখরোচক চিকেন মাশরুম বিরিয়ানি

পাকা রাঁধুনী ডেস্ক ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৫, ২০১৯

print
মুখরোচক চিকেন মাশরুম বিরিয়ানি

প্রায় তিন হাজার বছর আগে মুখরোচক খাদ্য হিসেবে মাশরুম এর প্রচলন শুরু হয় প্রাচীন মিসরে। মিসরের ফারাওদের কাছে এটি ছিল জনপ্রিয় একটি খাবার। তখনকার অভিজাত ছাড়া কেউই এর স্বাদ গ্রহণ করতে পারত না। ১০০ গ্রাম শুকনা মাশরুমে আছে অনেক প্রোটিন। প্রচুর পরিমাণ ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ফলিক অ্যাসিড ও লৌহও রয়েছে এতে। মানুষের শরীরের জন্য ব্যাপক উপকারী এই মাশরুমের সাথে পোলাওয়ের চাল ও মুরগির মাংসের সমন্বয়ে তৈরি করা হয় চিকেন মাশরুম বিরিয়ানী।

উপকরণ :
১. পোলাওয়ের চাল আধা কেজি।
২. মুরগির মাংস ১ কেজি।
৩. মাশরুম ২৫০ গ্রাম।
৪. আদা বাটা ১ টেবিল চামচ।
৫. রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ।
৬. পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ।
৭. বাদাম বাটা ১ টেবিল চামচ।
৮. গরম মসলা সামান্য।
৯. গরম মসলা গুঁড়ো ১ চা চামচ।
১০. আলু টুকরা ২৫০ গ্রাম।
১১. তেল ২০০ গ্রাম।
১২. তরল দুধ ২০০ মিলিলিটার।
১২. টক দই আধা কাপ।
১৪. কিশমিশ।
১৫ পেস্তা কুচি ১ টেবিল চামচ।
১৬. কেওড়া জল ১ টেবিল চামচ।
১৭. লবণ পরিমাণমতো।
১৮ চিনি ২ চা চামচ।
১৯. পোস্তদানা বাটা আধা টেবিল চামচ।
২০. মাওয়া ১ টেবিল চামচ।
২১. কাঁচামরিচ ৫টি।

তৈরি করবেন যেভাবে :
১। কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে নিন মাশরুম।
২। চার টুকরা করে কেটে ধুয়ে নিন আলু ও মাংস।
৩। কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজ বেরেস্তা করুন।
৪। অর্ধেক পেঁয়াজ বেরেস্তা, আদা, রসুন, টক দই, পোস্তদানা বাটা, বাদাম বাটা দিয়ে মাংস মেরিনেট করে রাখুন ৩০ মিনিট।
৫। আলু ও মাশরুম হালকা ভাজুন। মসলা-মাখানো মুরগি লবণ দিয়ে বেরেস্তা করা তেলে হালকা কষিয়ে নিন। এরপর আলু ও মাশরুম দিয়ে দিন।
৬। চুলা থেকে মাংস উঠিয়ে ১ কেজি পানি দিন কড়াইয়ে । ১ টেবিল চামচ পানির মধ্যে ৭। বেরেস্তা, তরল দুধ, ১ চা চামচ আদা বাটা, গোটা গরম মসলা ও পরিমাণমতো লবণ দিন।
৮। পানি ফুটে উঠলে চাল দিন। ১ চা চামচ চিনি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। ১০ মিনিট বেশি জ্বালে দিয়ে পরে আঁচ কমিয়ে দিন।
৯। মাওয়া, কিশমিশ, বাদাম কুচি, কাঁচামরিচ, বাকি পেঁয়াজ বেরেস্তা, ১ চা চামচ চিনি দিয়ে মেখে নিন।
১০। পোলাও আধাসিদ্ধ হলে আলু, মাশরুম, মাংস ও মাখানো বেরেস্তার মিশ্রণ স্তরে স্তরে দিয়ে ২০ মিনিট দমে রেখে পরিবেশন করুন।