ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০২৪ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

কচি পাকুড়পাতার ভর্তা

অনলাইন ডেস্ক
🕐 ১:৪২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০২৩

কচি পাকুড়পাতার ভর্তা

৯ আগস্ট আদিবাসী দিবস। সেই উপলক্ষ্যেই রইল আদিবাসীদের মধ্যে বিখ্যাত একটি পদের রেসিপি। পাকুড়গাছের পাতা দিয়ে তৈরি হয় স্বাদে অতুলনীয় এই পদটি।

জেনে নিন তৈরির নিয়ম-
পাকুড়গাছের কচি পাতার সঙ্গে সামান্য কয়েকটি উপকরণ দিয়ে এই বিশেষ পদটি রান্না করেন সাঁওতালরা। সাঁওতালি ভাষায় এর নাম হিসাআরা জলিসাকামরে সিপি। বাংলায় তর্জমা করলে দাঁড়ায় কচি পাকুড়পাতার ভর্তা।

এই পদটি তৈরিতে খুব সামান্য উপকরণ হলেই চলে। ঘরোয়া কয়েকটি উপকরণেই তৈরি করা যাবে এই সুস্বাদু পদ। প্রধান উপকরণ হলো পাকুড়পাতা ১০০ গ্রাম, মরিচ ৬টি, পেঁয়াজকুচি ১ কাপ, পানি দেড় কাপ, লবণ ও সরিষার তেল পরিমাণমতো।

যেভাবে রাঁধবেন-

সম্পূর্ণ রান্নাটি মাটির হাঁড়িতে করা গেলে আলাদা স্বাদ হবে। একটি মাটির হাড়িতে পানি ও পরিমাণমতো লবণ দিয়ে চুলায় কিছুক্ষণ ফোটাতে হবে। পানি ফুটে উঠলে কচি পাকুড়পাতা দিয়ে ঢেকে দিন।

এবার মাঝে মাঝে ঢাকনা তুলে খুন্তি দিয়ে নেড়ে দিন। সম্পূর্ণ পানি টেনে গেলে শুকিয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন। চুলায় এবার আরেকটি মাটির হাঁড়ি দিয়ে সামান্য সরিষার তেল দিন।

তেল গরম হলে শুকনো মরিচগুলো ভেজে নিতে হবে। এবার একটি মাটির পাত্রে সেদ্ধ পাকুড়পাতা, ভাজা শুকনো মরিচ, কুচোনো পেঁয়াজ ও সরিষার তেল ভালোভাবে মেখে নিলেই তৈরি হিসাআরা জলিসাকামরে সিপি। গরম গরম ভাতের সঙ্গে একবার খেলেই স্বাদ লেগে থাকবে মুখে।

 
Electronic Paper