চট্টগ্রামে আগুনে নিঃস্ব শতাধিক দোকানি

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

চট্টগ্রামে আগুনে নিঃস্ব শতাধিক দোকানি

চট্টগ্রাম ব্যুরো ৯:৪২ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৯

print
চট্টগ্রামে আগুনে নিঃস্ব শতাধিক দোকানি

প্রায় দুই ঘণ্টার আগুন চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালি থানায় দুটি মার্কেটের শতাধিক দোকানিকে নিঃস্ব করে দিয়েছে। শনিবার (১৯ অক্টোবর) ভোরে আগুন লাগার খবর পেয়ে দোকানে এলেও অনেকে বাঁচাতে পারেননি তাদের মালামাল। আগুনে নিঃস্লার দিকে প্রথমে জালালাবাদ মার্কেটে আগুন লাগে। পরে তা পাসের জহুর হকার্স মার্কেটেও ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় দুই মার্কেটের অন্তত ১৩০টি দোকান আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিটের দুই ঘণ্টার চেষ্টায় সকাল পৌনে ৬টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানা যায়নি। আগুনে কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন জানান, আগুনে ১৩০টির মতো দোকান পুড়ে গেছে বলে প্রাথমিকভাবে আমরা জানতে পেরেছি। এর মধ্যে ২০-২৫টি দোকান হকার্স মার্কেটের এবং বাকি দোকানগুলো জালালাবাদ মার্কেটের। জহুর হকার্স মার্কেট এবং জালালাবাদ মার্কেটের ছোট ছোট দোকানগুলোতে তৈরি পোশাক বিক্রি হতো। কম দামে পোশাক মেলায় তা বন্দরনগরীর জমজমাট বিপণি কেন্দ্র।

আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর কথা হয় ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকজন ব্যবসায়ীর সঙ্গে। তাদের একজন মো. ইয়াসিন। তিনি শেখ কামাল ইন্টারন্যাশনাল ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের জন্য দুই হাজারেরও বেশি গেঞ্জি স্ক্রিন প্রিন্ট করেছেন। শনিবারই এসব গেঞ্জি ডেলিভারি দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শেষ রাতের ভয়াবহ আগুন তা ছাই করে দিয়ে গেছে।

ইয়াসিন জানান, রাতে দোকান বন্ধ করে তিনি বাসায় ঘুমাতে যান। ভোরে আগুন লাগার খবর পেয়ে দ্রুত ছুটে গিয়ে আগুন দেখতে পান। শেষমেশ আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও তার আগেই দোকানের সব মালামাল পুড়ে যায়। এ কথা বলার সময় তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন। নিজের পুড়ে যাওয়া দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে কথা হয় আরেক ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীর সঙ্গে। তারা জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে দ্রুত ছুটে এলেও কিছু রক্ষা করতে পারেননি তারা। আগুনে দোকানের সব মালামাল পুড়ে অঙ্গার হয়ে গেছে।

এর আগে ভোর ৪টার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালি থানাধীন জালালাবাদ মার্কেটে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে জানান আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক জসিম উদ্দিন। পরে আগুন জহুর হকার্স মার্কেটের দোকানেও ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিট দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নেভালেও তার আগেই দুই মার্কেটের শতাধিক দোকান পুড়ে যায়।