ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪ | ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

মঠবাড়িয়ায় অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেফতার ১১

পিরোজপুর প্রতিনিধি
🕐 ৪:৩৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৮, ২০২৩

মঠবাড়িয়ায় অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেফতার ১১

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ ও ডিবি পুলিশ মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশি কাজে বাধা দেয়ার মামলায় ১২জনকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ এসময় দুটি বিদেশী পিস্তল, দুটি ম্যাগজিন, ১২ রাউন্ড গুলি ও দুটি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করে।

 

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মোঃ কামরুজ্জামান তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আটককৃতরা হলো- উপজেলার চিত্রা পাতাকাটা গ্রামের মৃত চানমিয়া মাঝির ছেলে সোহেল ওরফে ফল সোহেল (২৭), বহেরা তলা গ্রামের নূর আলম মাতুব্বরের ছেলে এনামুল হক রনি (২৮), দক্ষিণ মিঠাখালীর মোঃ কামাল সরদারের ছেলে হাসান সরদার (২৯), চিত্রা পাতাকাটার আব্দুল মজিদ হাওলাদারের ছেলে আখতারুজ্জামান নিজাম (৩৪), মঠবাড়িয়া গ্রামের আঃ হক হাওলাদারের ছেলে রিয়াজ (২১), বকসির ঘটিচোরা এলাকার মজিদ খানের ছেলে বেল্লাল খান (৩৮), উত্তর মিঠাখালী গ্রামের ফুল মিয়া বেপারীর ছেলে লাবু বেপারী (২৪), মিরুখালী রোডস্থ আব্দুর রহিম খানের ছেলে স্বাধীন খান (১৬), জানখালীর মৃত তোতাম্বর আলী আকনের ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ বেলায়েত আকন (৫৫), মৃত আজিজুর রহমান গোলদারের ছেলে মোঃ রেদোয়ান গোলদার (৪২) ও মঠবাড়িয়া শহরের নূর মোহাম্মদের ছেলে মিলন (৩২)।

পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়িয়া) সার্কেল মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন জানান, ফল সোহেলের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া একটি মামলায় সোহেলকে গত ৬ নভেম্বর সন্ধায় মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে। এসময় ৪০-৫০ জনের একটি কিশোর গ্যাং পুলিশের হাত থেকে সোহেলকে ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় মঠবাড়িয়া থানার সেকেন্ড অফিসার আঃ কুদ্দস বাদী হয়ে পুলিশি কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে থানা ও ডিবি পুলিশ মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) রাতে মঠবাড়িয়ার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে কিশোরগ্যাং এর মাস্টারমাইন্ড ফল সোহেলকে ১টি বিদেশী পিস্তল ১টি ম্যাগজিন ও ৪ রাউন্ড গুলিসহ গ্রেপ্তার করে। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তুষখালী ইউনিয়নের জানখালী গ্রামে রোদোয়ান গোলদারের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে রেদোয়ান গোলদারকে ১টি বিদেশী পিস্তল ১টি ম্যাগজিন ও ৮ রাউন্ড গুলি, ২টি ধারালো অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে অন্যান্যদের আটক করা হয়।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মোঃ কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে মঠবাড়িয়া থানায় পৃথক ৩টি মামলা দায়ের করেছে। গ্রেপ্তারকৃতদের বুধবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ফল সোহেলের বিরুদ্ধে ডিবি ওসি হত্যা চেষ্টা মামলাসহ ১৮ মামলা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তবে তদন্তের স্বার্থে অন্য আসামীদের নাম বলতে রাজি হননি ওসি।

 
Electronic Paper