ঢাকা, বুধবার, ২২ মে ২০২৪ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

থ্রি-এস জালিয়াতি করে নিয়েছিলো কপিরাইট, বাতিল করলো কপিরাইট অফিস

নিজস্ব প্রতিবেদক
🕐 ৬:৪১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ০৫, ২০২৪

থ্রি-এস জালিয়াতি করে নিয়েছিলো কপিরাইট, বাতিল করলো কপিরাইট অফিস

তাওহীদ রিজওয়ান রাজ্জাকের একক স্বত্বাধিকারের ২টি সফটওয়্যারের কপিরাইট থ্রি-এস এর প্রোপ্রাইটার তৌফিক হাসান সত্য তথ্য গোপন, প্রতারণা ও জালিয়াতি করে কপিরাইট নিয়েছেন এই মর্মে অভিযোগ দাখিল হয়, যার রায়ে ২ এপ্রিল ২০২৪ তারিখে কপিরাইট অফিস ২০২৩ কপিরাইট আইন এর ক্ষমতাবলে বাতিল ঘোষণা করে।

তাওহীদ রিজওয়ান রাজ্জাক হোস্ট রেস্টুরেন্ট, প্রোক্রিয়ন নামক পিওএস সফটওয়্যারের প্রকৃত প্রণেতা এবং কপিরাইট স্বত্বাধিকারী। ২০২২ সালের অক্টোবর মাসে থ্রি-এস এর প্রোপ্রাইটার কপিরাইট অফিস হতে একই সফটওয়্যার এর কপিরাইট নেন। পরবর্তীতে তাওহীদ ও থ্রি-এস পাল্টা-পাল্টি অভিযোগ দাখিল করেন কপিরাইট অফিসের বর্তমান রেজিস্ট্রার মো. দাউদ মিয়া, এন ডি সি বরাবর। গত ১৪ মার্চ ২০২৪ তারিখে দুই পক্ষের আইনজীবিসহ কপিরাইট অফিসে দীর্ঘ শুনানী হয়। গত ২ এপ্রিল এই শুনানীর আদেশ বিজ্ঞ ডেপুটি রেজিস্ট্রার (উপসচিব) আবুল কাশেম মোহাম্মদ ফজলুল হক স্মাক্ষরিত ৫টি স্মারকমূলে কপিরাইট অফিস দুই পক্ষকে ইমেইলের মাধ্যমে জানান। রায়ে একক প্রণেতা তাওহীদ রিজওয়ান রাজ্জাক এর কপিরাইট বহাল থাকার নির্দেশ দেওয়া হয় এবং সত্য তথ্য গোপন ও মিথ্যা তথ্য সন্নিবেশ করার দায়ে থ্রি-এস এর প্রোপ্রাইটার তৌফিক হাসানের ২টি কপিরাইট বাতিলের ঘোষণা দেওয়া হয়।

কপিরাইট আইন, ২০২৩ ডিজিটাল কর্মের জন্য পরিবর্ধিত এবং শক্ত করা হয়েছে। এ আইন অনুযায়ী মিথ্যা তথ্য সন্নিবেশন, প্রতারণা বা প্রভাবিত করে তথ্য প্রদান করা, প্রণেতা কর্তৃক মিথ্যা কর্তৃত্ব আরোপ করা ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে ও দণ্ডের বিধান রয়েছে।

সফটওয়ারগুলোর স্বত্বাধিকারী তাওহীদ রিজওয়ান রাজ্জাক অভিযোগ করেন, ২০২২ সাল থেকে কোনো ধরনের অনুমতি ছাড়াই বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট, সুপার শপ, ফার্মেসি ও শোরুমে সফটওয়্যার সেবা দিচ্ছে থ্রিএস নামক প্রতিষ্ঠানটি। মূলত সফটওয়্যারগুলো ব্যবসায়িক কাজে ব্যবহারের জন্য তাওহীদ রিজওয়ান রাজ্জাক অনুমোদন দিয়েছে অটোমেটিক নামক সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠানকে।

তাওহীদ রিজওয়ান রাজ্জাক এর একক স্বত্বাধিকারী তিনটি সফটওয়্যার অনুমতি ছাড়া অনুলিপি তৈরি ও বাজারজাতকরণের জন্য ঢাকা মেট্রপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী গত ৪ জানুয়ারি থ্রিএস সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠানের মালিক তওফীক হাসান এবং ফয়েজ আহমেদ তালুকদার বাধনের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। এই মামলা এখন বিচারাধীন আছে।

 

 
Electronic Paper