প্রয়োজনে বন্ধ হবে আন্তঃজেলা যান চলাচল

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১২:০৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৮,২০২০

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের প্রকোপ দিন দিন বাড়ছেই। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে উদ্ভূত পরিস্থিতে আন্তঃজেলা যান চলাচল বন্ধে প্রয়োজন হলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরবিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বুধবার (১৮ মার্চ) বেলা ১১টায় সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সমসাময়িক ইস্যুতে ব্রিফিংকালে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের বলেন, পরিবহন মালিকরা হতাশ, যাত্রী কমে গেছে। এগুলো অটোমেটিকালি কমে যাবে। পরিস্থিতি কমিয়ে ফেলবে। তারপরও যদি প্রয়োজন হয় আমরা ব্যবস্থা নেবো।

তিনি বলেন, আমাদের শত্রু করোনা ভয়ঙ্কর। আমরা জাতি হিসেবে গতকালও প্রমাণ করেছি ভয়ঙ্কর করোনার যে শক্তি তারচেয়েও বড় শক্তি আমাদের সম্মিলিত শক্তি। এ যুদ্ধের প্রতিপক্ষ শক্তিশালী। এটা প্রতিরোধযোগ্য। আমরা এটি পরাজিত করতে পারবো বলে আশা করছি।

অন্যান্য দেশের মতো যদি বাংলাদেশে শাটডাউন করতে হয়, সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের প্রস্তুতি আছে কি-না এমন এক প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘প্রয়োজন হলে শাটডাউন করা হবে। যেখানে প্রয়োজন, সেখানে করা হবে। সবার আগে মানুষকে বাঁচাতে হবে। সেজন্য যা যা করণীয় করা হবে।

তিনি বলেন, আমেরিকার মতো বিরাট শক্তিশালী দেশের বিভিন্ন এয়ারপোর্টে স্ক্রিনিং বিশৃঙ্খলা দেখা দিয়েছিল। আমাদের তো অভিজ্ঞাতা নেই। তবুও ভুল থেকে শিক্ষা নিচ্ছি। পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য যা প্রয়োজন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সতর্কভাবে করোনা মোকাবিলার সকল প্রস্তুতি নেব। এ ব্যাপারে কী করণীয়, এজন্য মিডিয়ার সাজেশনও প্রয়োজন।

সব রাজনৈতিক দলের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, করোনা প্রতিরোধে সরকারিভাবে কঠোর নজর দেব। সাংবাদিকরাও সঠিক রিপোর্ট করবেন। এখানে প্রাণ বাঁচানোর বিষয়। প্রাণঘাতি ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করছি। এখানে রাজনীতি না করে সকল রাজনৈতিক দলের কাছে অনুরোধ, করোনা অভিন্ন শত্রু, কোনো পলিটিক্স না করে ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবেলা করতে হবে।

সারাবিশ্বের জন্য এটি নতুন অভিজ্ঞতা। মানসিকভাবে আমরা ওয়েল ইক্যুয়িড। এটা একটা বড় শক্তি। যে ইক্যুয়িপমেন্ট দরকার তার যে ঘাটতি সেটি পূরণের চেষ্টা করছি। ঘাটতি পূরণে আন্তরিকতার ঘাটতি নেই।

রাজনৈতিক সভা-সমাবেশ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছি যে সভা সমাবেশে যাব না। সেজন্য বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সীমিত করেছি। করোনা আমাদের সকলের অভিন্ন শত্রু। রাজনৈতিক যে চিন্তা চেতনা সব কিছুর উর্ধ্বে করোনা মোকাবেলা করা। আসুন আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে তা মোকাবেলা করি।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনে করোনাভাইরাসের শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্বের প্রায় ১৬৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী এ ভাইরাস। ফলে করেনা আতঙ্কে রয়েছে গোটা বিশ্ব। বিশ্বে মহামারি আকারে ধারণ করা এই ভাইরাসে এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭ হাজার ৯৬৫ জনে দাঁড়িয়েছে।

এছাড়া প্রায় ১ লাখ ৯৮ হাজার ১২৯ জন।মোট মৃতের মধ্যে চীনেই মারা গেছে তিন হাজার ২২৬ জন। আর দেশটিতে আক্রান্ত সংখ্যা প্রায় ৮০ হাজার ৮৮১ জন। তবে করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল হলেও বর্তমানে কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসে চীনে।

ফলে আগের মতো তেমন আক্রান্ত বা মৃতের খবর পাওয়া যাচ্ছে না।তবে আশার দিক এটি যে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে অন্তত ৮১ হাজার ৭২৭ জন চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

সম্পাদক ও প্রকাশক : আহসান হাবীব
উপদেষ্টা সম্পাদক : মোশতাক আহমেদ রুহী

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: kholakagojnews7@gmail.com
            kholakagojadvt@gmail.com