রাবার ড্যাম ও ব্যারাজ

ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ | ৪ পৌষ ১৪২৫

রংপুরের নদীকথন

রাবার ড্যাম ও ব্যারাজ

বিবিধ ডেস্ক ১:৫৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০১৮

print
রাবার ড্যাম ও ব্যারাজ

রংপুর অঞ্চলের কয়েকটি নদীতে রাবার ড্যাম আছে। ব্যারাজ আছে তিস্তা এবং টাঙন নদীতে। ব্যারাজ এবং রাবার ড্যাম মূলত তৈরি করা হয়েছে নদীর পানি সেচকাজে ব্যবহার করার জন্য। কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলায় জিঞ্জিরাম নদীতে রাবার ড্যাম আছে। আত্রাই-কাঁকড়া নদীতেও একটি রাবার ড্যাম আছে। দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলায় এ রাবার ড্যামটি স্থাপন করা হয়েছে।

পঞ্চগড়ের তালমা নদীতে আরেকটি রাবার ড্যাম স্থাপন করা হয়েছে। বর্তমানে রাবার ড্যাম এবং সেচপ্রকল্পগুলো থেকে যে পানির সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে তার চেয়ে ক্ষতি হচ্ছে অনেক বেশি। তিস্তা নদীর ওপর শুধু বাংলাদেশ ব্যারাজ স্থাপন করেনি। ভারত কয়েকটি করেছে। ভারত এ নদীতে বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্পও গ্রহণ করেছে। তিস্তা নদীতে শুষ্ক মৌসুমে যে পরিমাণ পানি থাকার কথা, ভারত একতরফা পানি প্রত্যাহার করার কারণে তা থাকছে না। কোনো কোনো বছর পানি ২শ কিউসেকেরও নিচে নেমে আসে।

শুষ্ক মৌসুমে যে সামান্য পানি আসে তা দিয়ে নদীটিকে বাঁচিয়ে রাখা জরুরি। একইভাবে টাঙন নদীরও বাস্তবতা। যখন টাঙন নদীতে ব্যারাজ দিয়ে পানি আটকানো হয় তখন ভাটিতে টাঙন একেবারেই শুকিয়ে যায়। একটি নদীর পানি সম্পূর্ণ প্রত্যাহার করে সেচ প্রকল্পে সাময়িক কিছুটা লাভ পাওয়া যেতে পারে। তা কখনই দীর্ঘ মেয়াদের জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে না।