হোমিওপ্যাথিতে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণ

ঢাকা, বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০ | ৩১ আষাঢ় ১৪২৭

পাঠকের চিঠি

হোমিওপ্যাথিতে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণ

শাহ্ সৈকত মুন্না ৮:৪৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২০

print
হোমিওপ্যাথিতে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণ

বিশ্বে মহামারী আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। হোমিওপ্যাথির মাধ্যমে করোনা ভাইরাস থেকে দূরে থাকা যাবে। ইতিপূর্বে হোমিওপ্যাথির মাধ্যমে ডেঙ্গু রোগেরও নিয়ন্ত্রণ যেভাবে সম্ভব হয়েছে, বর্তমানে করোনা ভাইরাসের নিয়ন্ত্রণও সম্ভব।

Arsenicum Album 30/200 (আর্সেনিকাম এলবাম ৩০/২০০) ওষুধটি সেবনে আমরা প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকতে পারব। পরপর তিন দিন সকালে খালি পেটে ৪/৫টি বড়ি (পিল) অথবা এক/দু’ফোঁটা ওষুধ সেবন করতে হবে। বড় এবং ছোট উভয়েই একই নিয়মে এ ওষুধ সেবন করতে পারবে।

যদি কোনো এলাকায় এই রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় তাহলে ওই এলাকায় একই নিয়মে ওষুধ উচ্চ মাত্রায় পুনরায় সেবন করতে হবে। যাবতীয় ঠাণ্ডা পরিহার করতে হবে। গরম পানি, গরম খাবার ও গরম কাপড়ের ব্যবহার বেশি করতে হবে।

করোনা ভাইরাস মানুষ থেকে মানুষের ছোঁয়ায় ছড়িয়ে যায়। তাই অপরিচিত মানুষের স্পর্শ থেকে বিরত থাকার পাশাপাশি সর্বদা মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। এ রোগের লক্ষণ এখনো পর্যন্ত পৃথিবীতে আবিষ্কার হয়নি। তবে মনে করা হয় সর্দি ও শ্বাসকষ্টই করোনা ভাইরাসের প্রধান লক্ষণ।

আমাদের এ তথ্য দিয়ে সাহায্য করেছেন ড. মো. শাহাদৎ হোসেন, সভাপতি মির্জাপুর হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক পরিষদ এবং সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান, প্রাণিবিদ্যা বিভাগ, মির্জাপুর সরকারি কলেজ, মির্জাপুর, টাঙ্গাইল।

শাহ্ সৈকত মুন্না, খোলা কাগজ প্রতিনিধি, মির্জাপুর, টাঙ্গাইল