ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪ | ৩ আষাঢ় ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

কুমারখালীতে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে বন্ধু খুন

সৌরভ হোসেন, কুষ্টিয়া
🕐 ৮:০৪ অপরাহ্ণ, মে ২০, ২০২৩

কুমারখালীতে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে বন্ধু খুন

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে অপর বন্ধু নিহতের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (২০ মে) বিকেলে উপজেলার পান্টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের খেলার মাঠে এঘটনা ঘটে। হত্যাকান্ডের কারণ এখনও জানাতে পারিনি পুলিশ।

নিহত ব্যক্তির নাম মো. তানজিল শেখ (২০)। তিনি পান্টি ইউনিয়নের ওয়াসী গ্রামের মো. মনিরুল শেখের ওরফে মনের ছেলে ও পান্টি ডিগ্রী কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কলেজ ছাত্র তানজিলসহ কয়েকজন বন্ধু কোচিং শেষে বিকেল সোয়া ৪ টার দিকে পান্টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের খেলারমাঠে গল্প করছিলেন। এসময় অপর বন্ধু ইমন ওরফে ওবাইদা (২০) এসে তাদের সাথে গল্প শুরু করেন। একপর্যায়ে তানজিলের সাথে ইমনের তর্কবিতর্ক হয়। এরই মধ্যে ইমন তার পকেট থেকে ছুরি বের করে তানজিলের বুকে কয়েকটা আঘাত করে। এতে তিনি আহত হয়ে পড়লে অন্যান্য বন্ধু ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে যান এবং কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিশ্বস্ত সুত্রে জানা গেছে, অনলাইন গেইম অথবা ফেসবুকে ছবি পোষ্ট করা নিয়ে তাদের তর্কবিতর্ক চলছিল। ইমন পান্টি বাজার এলাকার চা বিক্রেতা মিলন হোসেনের ছেলে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী তাদের বন্ধু স্বাধীন বলেন, তর্কবিতর্ক করার এক পর্যায়ে ইমন পকেট থেকে ছুরি বের করে তানজিলের বুকে ঢুকিয়ে দেয়। এতে আহত হয়ে পড়ে তানজিল মারা গেছে।

এ বিষয়ে নিহতের বোন লামিয়া বলেন, তার ভাই কোচিং শেষে পান্টি স্কুল মাঠে পৌছালে ইমন ছুরি মারে। কিন্তু কি কারণে ছুরি মারেছে তা তিনি জানেন না। এদিকে ঘটনার পরপরই এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে ঘাতক ইমন ও তার পরিবারের সদস্যরা।

কুমারখালী থানার ওসি মো. মোহসীন হোসাইন বলেন, বন্ধুর ছুরিকাঘাতে বন্ধু নিহত হয়েছে। তবে কি কারণে এমন ঘটনা তা তিনি জানতে পারেননি। ঘটনার তদন্ত চলছে এবং জড়িতদের গ্রেফতার অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

 
Electronic Paper