সাউন্ডবক্স বাজানো নিয়ে রণক্ষেত্র

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১ আশ্বিন ১৪২৬

সাউন্ডবক্স বাজানো নিয়ে রণক্ষেত্র

ফরিদপুরে আ.লীগের আহত ৩০

বোয়ালমারী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৩, ২০১৯

print
সাউন্ডবক্স বাজানো নিয়ে রণক্ষেত্র

সাউন্ডবক্স বাজানোকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে রণক্ষেত্র তৈরি হয়েছে ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলায়। গতকাল সোমবার সকালে ময়না ইউনিয়নের কান্দাকুল গ্রামের ওই ঘটনায় আহত হয়েছে ৩০ জন। তাদের মধ্যে ১৭ জনকে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এলাকাবাসী জানায়, কান্দাকুল গ্রামে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হারুন মাস্টার ও ময়না ইউপির ১নং ওয়ার্ড সদস্য আক্তার মেম্বারের মধ্যে বিরোধ চলছিল। রোববার আক্তার মেম্বারের সমর্থকরা বিদ্যুতের নতুন সংযোগ পেয়ে রাতে সাইন্ড বক্স বাজায়। অপর গ্রুপ হারুন মাস্টারের পক্ষের লোকজন বিদ্যুৎ সংযোগ না পাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে সাউন্ড বক্স বাজাতে নিষেধ করে।

এ ঘটনার জের ধরে সোমবার ভোরে দেশীয় অস্ত্র ও ঢাল-সড়কি নিয়ে দুগ্রুপে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় সংঘর্ষে আহত হয় ৩০ জন। আহতদের মধ্যে বাকি বিশ্বাস (৪৫), আবুল খায়ের (৫৫), হানিফ বিশ্বাস (৪৫), আমিনুল ইসলাম (৩০), ইয়াসিন বিশ্বাস (১৮), ফারুক বিশ্বাস (৩৫), জহির বিশ্বাস (৩৫), আবুল হোসেন (৫০), সুজন বিশ্বাস (২৭), বাসি বিশ্বাস (৩২), নওশের বিশ্বাসকে (৩০) বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও শাহাদত হোসেন (২৮), বাদশা বিশ্বাস (৬৫), আলামিন শেখ (১৯), হাকিম বিশ্বাস (৩৯), জিহাদ বিশ্বাসকে (২২) ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে আক্তার মেম্বার বলেন, রোববার রাতে আমার সমর্থকরা সাউন্ড বক্স বাজাচ্ছিল। হারুন মাস্টারের লোকজন সাউন্ড বক্স বাজানোর ঘটনায় অতর্কিত হামলা চালায়। এ ঘটনায় পরের দিন সকালে আমার লোকজন তাদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। হারুন মাস্টার বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আক্তার মেম্বারসহ তার লোকজন আমার লোকজনের ওপরে অতর্কিত হামলা চালায়।

বোয়ালমারী থানার এসআই আশুতোষ ভৌমিক বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করি। এখন কোনো পক্ষই এলাকায় নেই। এখন পর্যন্ত থানায় কোনো পক্ষই লিখিত অভিযোগ দেয়নি।