‘খেলাধুলা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী!’

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯ | ৮ কার্তিক ১৪২৬

‘খেলাধুলা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী!’

মুহা. তাজুল ইসলাম ২:১৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০১, ২০১৯

print
‘খেলাধুলা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী!’

ক্যাসিনোকে অনন্য মাত্রায় নিয়ে গেছেন কুদরত উল্লাহ চৌধুরী। অনেক জুয়াড়িকেই মাদক-নারীর নেশা করিয়েছেন। চলমান অভিযানে ক্যাসিনো বন্ধ থাকায় এসেছেন গোপন সাক্ষাৎকারে...কাল্পনিক সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন মুহা. তাজুল ইসলাম।

এত সব ব্যবসা রেখে আপনি ক্যাসিনো ব্যবসায় কেন? অনেক লাভ বলে!
বিষয়টি তা নয়। দেখুন, ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গা লন্ডন, সিঙ্গাপুর আর নিউইয়র্ক হয়ে গেছে অনেক আগেই। তিনটি শহরের অন্যতম জনপ্রিয় জায়গা হলো ক্যাসিনো। এই ক্যাসিনোর অভাবে ঢাকা শহরে আমরা আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা দিয়েও পিছিয়ে ছিলাম। যা একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে মানতে পারছিলাম না। তাই দায়িত্ববোধ থেকে...!

আপনার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় দল পরিবর্তনের অভিযোগ আছে...।
কখনোই দল পরিবর্তন করি না। সবসময় সরকারি দলে থাকি। যারা সরকারে যায়, তাদের সঙ্গে যুক্ত হয়ে দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সহায়তা করি। বলতে পারেন দেশের জন্য নিজেকে উৎসর্গ করেছি।

ক্লাবগুলোকে ক্যাসিনোতে পরিণত করা কতটুকু যৌক্তিক?
ক্রিকেট-ফুটবল যেমন খেলা ঠিক তেমনি জুয়াও একটি খেলা। তিনটি খেলা যারা খেলে তাদের সবাই-ই কিন্তু খেলোয়াড়। ক্লাবে খেলা হচ্ছে, খেলোয়াড়রা খেলছে। ক্রিকেট-ফুটবল হোক বা জুয়াই হোক; হচ্ছে তো! খেলাটাই বড় কথা। খেলাধুলা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী!

ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে অভিযান নিয়ে যদি বলতেন?
কাজটি মোটেও ঠিক হয়নি। একটা দ্রুত বর্ধনশীল ব্যবসা কেবল মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে, ঠিক এমন সময়ে প্রশাসন থেকে হানা দেওয়া হলো। এমন একটি অভিযান হবে সেই বিষয়ে কমপক্ষে ছয় মাস আগে আমাদের জানানো উচিত ছিল। মনে করি আমাদের প্রতি সুবিচার হয়নি।
আপনার অফিসে বিদেশি যে মদ পাওয়া গেছে। অবস্থান যদি পরিষ্কার করতেন!
আমি দুধ আর লেবুর শরবত ছাড়া কোনো পানীয়-ই খাই না। তবে দেশি-বিদেশি মদের ব্যাপারে অনেকের চাহিদা থাকে, তাদের না করতে পারি না। যেহেতু মদ খাওয়া ক্ষতিকর, সেই বিবেচনায় মদের মধ্যে ওয়াসার বিশুদ্ধ পানি মিশিয়ে দিই। ফলে বেশি ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকে না।

দেশে না থেকে বিদেশে পালিয়ে আছেন কেন?
মোটেও বিদেশে পালিয়ে নেই। সরকারের কঠোর নীতির কারণে ক্যাসিনো-মাদক ব্যবসা ঠিকমতো করতে পারছি না। অফ সিজনে বিদেশে ঘুরে অভিজ্ঞতা অর্জনের চেষ্টা করছি। নতুন কী ব্যবসা করা যায় ভাবছি। আপনার কাছে কোনো আইডিয়া থাকলে জানাবেন।