ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪ | ৬ বৈশাখ ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

বিপিএলের দল বাড়ানো নিয়ে মুখ খুললেন পাপন

অনলাইন ডেস্ক
🕐 ৩:৩৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ০৮, ২০২৪

বিপিএলের দল বাড়ানো নিয়ে মুখ খুললেন পাপন

১০ দল নিয়ে মাঠে গড়ায় ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। অন্যদিকে ছয়টি করে দল আছে পাকিস্তান সুপার লিগ, ইন্টারন্যাশনাল লিগ টি-২০, ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ ও দক্ষিণ আফ্রিকার এসএ-২০’তে। তবে মাত্র পাঁচটি দল নিয়ে গড়ায় লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ। সেখানে সাতটি দল নিয়ে আয়োজিত হয় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। বিপিএলের চেয়ে বেশি দল (৮টি) নিয়ে বিগ ব্যাশ লিগ ও ইংল্যান্ডের দ্য হান্ড্রেড আয়োজিত হয়।

 

তৃতীয় সর্বোচ্চ দল নিয়ে ঘরোয়া এই টুর্নামেন্টটি আয়োজিত হলেও অনেকের আক্ষেপ এলাকার দল না থাকা। বিপিএলে একবার শিরোপার স্বাদ নিয়েছিল রাজশাহী রয়্যালস। তবে এখন আর দলটির ফ্র্যাঞ্চাইজি নেই।

বিভাগ হওয়া সত্ত্বেও কখনই বিপিএলে খেলা হয়নি ময়মনসিংহের। অন্যদিকে নোয়াখালী, গাজীপুর অঞ্চলের দীর্ঘদিনের দাবি বিপিএল দল গঠনের।

সম্প্রতি বিপিএলের গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার চৌধুরী মল্লিকের ভাষ্য, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, গাজীপুর ও নোয়াখালীর প্রতিনিধিত্ব করতে আবেদন করেছে।

তাই বরাবরের মতোই বড় প্রশ্ন, আগ্রহী হলেও বিপিএলে আর দল বাড়ানো যাবে তো! জানা গেছে, বিপিএলে দল বাড়ছে না। কেউ সরে দাঁড়ালে সেখানে নতুন কাউকে দেখা যেতে পারে। সেখানেও থাকছে যদি-কিন্তুর বিষয়।

এবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন বিসিবি বস এবং যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন। তার দাবি, বিপিএলের আগামী আসরে দল বৃদ্ধির সম্ভাবনা কম।

পাপনের ভাষ্য, বলা মুশকিল। দুই বা তিনটি ফ্র্যাঞ্চাইজি যোগ হবে কি না… আমাদের সক্ষমতাও দেখতে হবে। প্রথম কথা হচ্ছে, ফ্র্যাঞ্চাইজি যদি যোগ হয়; খরচ অনেক বেড়ে যাবে। দ্বিতীয়ত, সময়। একটা টুর্নামেন্টের জন্য যে সময় আমরা পাই… এই সময়ে না করে যদি সময় একটু এদিক-সেদিক করতে পারতাম; আমরা আরও ভালো ভালো বিদেশি খেলোয়াড় পেতাম। কিন্তু আমাদের উপায় নেই।

ক্রীড়ামন্ত্রী যোগ করেন, দেখুন বিপিএল শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শ্রীলঙ্কার সঙ্গে খেলতে হচ্ছে। আমাদের তো ন্যূনতম একটা বিরতি দিতে হয়। এখন আবার প্রিমিয়ার লিগ শুরু হচ্ছে। তারপর সামনে আরও সিরিজ, এরপর বিশ্বকাপ। এত সময় পাওয়া কঠিন হবে। তৃতীয়ত, বাইরের ওই অবকাঠামো নেই। স্টেডিয়াম আছে, আনুষঙ্গিক যে জিনিস দরকার, সেই সুযোগ নেই। আমাদের পরিকল্পনা হলো এটাকে আরও বড় করব, সারা বাংলাদেশে নিয়ে যাব। কিন্তু আগামী বারেই হবে কি না বলা কঠিন।

 
Electronic Paper