ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪ | ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

ভিডব্লিউবি কর্মসূচির চাল আত্মসাতের অভিযোগ

সাদুল্লাপুর (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি
🕐 ৫:৩৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৬, ২০২৩

ভিডব্লিউবি কর্মসূচির চাল আত্মসাতের অভিযোগ

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার ভাতগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদে দুস্থদের বরাদ্দ ভিডব্লিউবি কর্মসূচির চাল আত্মসাতের অভিযোগ ওঠেছে। এ বিষয়ে গত সোমবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন মোরশেদা বেগম নামের এক ভুক্তভোগী নারী।

অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়, উপজেলার ভাতগ্রাম ইউনিয়নের বুজরুক রহিয়া গ্রামের ছিন্নমূল পরিবারের মেহেদী হাসান মিলনের স্ত্রী মোরশেদা বেগম ২০২৩-২৪ অর্থবছরে সরকারি বরাদ্দের প্রত্যেক মাসে ৩০ কেজি চাল প্রত্যাশায় ভিডব্লিউবি কর্মসূচির আওতায় অনলাইনে আবেদন করেন।

পরবর্তী মোরশেদা বেগম কার্ডের বিষয়ে খোঁজ নিতে গেলে তার নামে ভিডব্লিউবি কোন কার্ড চূড়ান্ত করা হয়নি বলে পরিষদ থেকে জানানো হয়। অথচ খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, মোরশেদা বেগমের নামে ভিডব্লিউবি কার্ড রয়েছে। কিন্তু সেই কার্ডের চাল তার নামে প্রত্যেক মাসের ৩০ কেজি করে ১০ মাস বিতরণ দেখানো হলেও সেই চাল পায়নি মোরশেদা বেগম। এরই মধ্যে এ চাল আত্মসাতের ঘটনাটি ফাঁস হলে এলাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষুব্ধতা বিরাজ করে।

এসব তথ্য নিশ্চিত করে ভুক্তভোগী মোরশেদা বেগম বলেন, আমার নামে ভিডব্লিউবি কার্ড হয়েছে তা জানা ছিলো না। ইদানীং জানতে পারি যে, আমার কার্ড দিয়ে কেউ চাল উত্তোলন করছে। এ পর্যন্ত আমি কোন চাল পায়নি। উত্তোলন করা ওইসব চাল ও কার্ডটি পাবার জন্য জোর দাবি করছি।

এ বিষয়ে ভাতগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মাহফুজার রহমানের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হয়। তিনি বলেন, মোরশেদা বেগমের নামে ভিডব্লিউবি কার্ড আছে কিনা এবং চাল উত্তোলনের বিষয়টিও জানা নেই।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, ভাতগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদে ভিডব্লিউবি সুবিধাভোগীর চাল আত্মসাতের বিষয়ে একটি অভিযোগপত্র পেয়েছি। সেটি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 
Electronic Paper