ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪ | ৩ আষাঢ় ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

পীরগঞ্জে সরকরি জমি দখলের পায়তারা, ৫৮ জনের নামে মামলা

পীরগঞ্জ প্রতিনিধি
🕐 ৫:১৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৮, ২০২৩

পীরগঞ্জে সরকরি জমি দখলের পায়তারা, ৫৮ জনের নামে মামলা

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে সরকারি হাটের সম্পত্তিতে জোড় করে ঘর নির্মাণের পায়তারা, সরকারি কাজে বাঁধা প্রদান, গ্রাম পুলিশকে ধাক্কাধাক্কিসহ ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তার মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে ৫৮ জনের নামে থানায় মামলা হয়েছে।

 

সোমবার রাতে উপজেলার খনগাঁও ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত উপ-সহকারী কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে এ মামলা দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাত নামা আসামী করা হয়েছে আরো ৫০ জনকে। তবে কেউ গ্রেফতার হয়নি।

মামলা সূত্রে জানা যায়, পীরগঞ্জ উপজেলার খনগাঁও ইউনিয়নের খনগাঁও মৌজায় এস এ ১ নং খাস খতিয়ানের ৩২৫ ও ৩২৫/১৫৯৫ নং দাগে ৪২ শতাংশ জমি হাট হিসেবে তৎকালীন কালেক্টর দিনাজপুর নামে রেজিষ্টারভুক্ত হয়। যেখানে ১২ বছর পূর্বে সপ্তাহের প্রতি শনিবার ও বুধবার হাট বসত। বর্তমানে সেখানে ৫/৬টি দোকান রয়েছে। গত সোমবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে ঐ হাটের সরকারি জমিতে এজাহারনামীয় ৮ জনসহ অজ্ঞাতনামা ৪০/৫০ জন লোক ঘর নির্মাণ করার পায়তারা করে। খবর পেয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিদের্শে খনগাঁও ইউনিয়ন ভূমি অফিসের উপ-সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মনোয়ার হোসেন দুই জন গ্রাম পুলিশকে সাথে নিয়ে সেখানে যায় এবং তাদের ঘর নির্মাণ করতে নিষেধ করেন। ঘর নির্মাণকারীরা নিষেধ অমান্য করে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তাসহ গ্রাম পুলিশদের ঘিরে ফেলে এবং সরকারী কাজে বাধা দেয়। এক পর্যায়ে গ্রাম পুলিশ এলাহী বকস ও সবিনকে পোশাক পড়া অবস্থায় ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয় এবং ভূমি কর্মকর্তার টার্চ মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় ঘর নির্মাণকারীরা।

উপজেলা চেয়ারম্যান আখতারুল ইসলাম বলেন, একটি মহল এলাকায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্য পায়তারা করছে। এ বিষয়ে উপজেলা প্রশাসন সজাগ রয়েছে। যে কোন মূল্যে এলাকায় শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষা করা হবে।

এ বিষয়ে পীরগঞ্জ থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সরকারি হাটের জমিতে জোড় করে ঘর তোলার ঘটনায় ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। তবে এখন পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহরিয়ার নজির বলেন, কালেক্টরেটের নামে রেকডিয় হাটের সরকারী জমিতে অবৈধভাবে ঘর তোলার সময় নিষেধ করা হলে, ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তাসহ গ্রাম পুলিশকে ধাক্কাধাক্কি এবং মোবাইল ফোন ছিনিয়ে দেয়ার ঘটনা দুঃখজনক। সরকারী স্বার্থ রক্ষায় তারা বদ্ধ পরিকর। ঐ ঘটনায় সরকারের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে।

 

 

 
Electronic Paper