ঢাকা, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪ | ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

হবিগঞ্জ-৩ আসনে নৌকার ৫ প্রত্যাশী

নিজস্ব প্রতিবেদক
🕐 ৬:৫০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২২, ২০২৩

হবিগঞ্জ-৩ আসনে নৌকার ৫ প্রত্যাশী

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে চলছে হবিগঞ্জ-৩ (হবিগঞ্জ সদর, লাখাই-শায়েস্তাগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ। নির্বাচনে অংশ নিতে ইতোমধ্যে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন আওয়ামী লীগ ৫ প্রত্যাশী।

তারা হলেন- হবিগঞ্জ-৩ বর্তমান সংসদ সদস্য ও হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট মো. আবু জাহির, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রুহুল আমীন মোল্লা (মিহন), হবিগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোতাচ্ছিরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবুল হাসেম মোল্লা (মাসুম) ও অনলাইনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন স্থানীয় পত্রিকা ‘আমার হবিগঞ্জ-এর প্রকাশক ও সম্পাদক প্রকৌশলী সুশান্ত দাশ গুপ্ত।

দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী আবুল হাসেম মোল্লা গণমাধ্যমকে বলেন- তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগনের চাহিদার কথা বিবেচনা করে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হবিগঞ্জ--৩ (হবিগঞ্জ সদর-লাখাই ও শায়েস্তাগঞ্জ) আসনে প্রার্থী হিসেবে আমি দলীয় সভানেত্রীর কাছে মনোনয়ন চেয়েছি। আশা করি- নেত্রী আমাকে মূল্যায়ন করবেন। এসময় তিনি সকলের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন।

আরেক প্রত্যাশী ব্যারিস্টার রুহুল আমীন মিহন বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে হবিগঞ্জ-৩ আসনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমি বিশ্বাস করি, তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধি হিসাবে জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে মনোনয়ন দিবেন। এ সময় তিনিও হবিগঞ্জ-৩ আসনের জনগণের দোয়া ও নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান।

প্রকৌশলী সুশান্ত দাশ গুপ্ত তাঁর ফেসবুকে লিখেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ‘স্মার্ট-বাংলাদেশ’ ভিশনের বাস্তবায়নে আমার ক্ষুদ্র প্রয়াস। অনলাইনেই মনোনয়নের আবেদন কিনলাম ও জমা দিলাম।

নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোতাচ্ছিরুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, হবিগঞ্জ সদর, লাখাই-শায়েস্তাগঞ্জ আসনের অবহেলিত সাধারণ মানুষের পাশে থাকার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সোনার বাংলা বিনির্মাণে কাজ করে যেতে চাই। আশা করছি- নেত্রী আমাকে সঠিক মূল্যায়ন করবেন।

এদিকে, বর্তমান সংসদ সদস্য এডভোকেট মো. আবু জাহির মঙ্গলবার ঢাকার ধানমণ্ডি বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর আওয়ামী লীগ কার্যালয় স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন জমা দেন। এসময় তিনিও জেলা আওয়ামী লীগ সকল নেতাকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের ১৮ নভেম্বর থেকে ২১ নভেম্বর পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করে দলটি। তপসিল অনুযায়ী আগামী ৩০ নভেম্বর নির্বাচন কমিশনের কাছে মনোনয়নপত্র জমার শেষ তারিখ। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ১ থেকে ৪ ডিসেম্বরের মধ্যে। প্রত্যাহারের শেষদিন ১৭ ডিসেম্বর এবং ১৮ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ। ওই দিন থেকেই প্রচারণা শুরু হবে। আর ৭ জানুয়ারি হবে সারা দেশে ভোট গ্রহণ।

 
Electronic Paper