মালেক মুস্তাকিমের ‘আমি হাঁটতে গেলে পথ জড়িয়ে যায় পায়ে’

ঢাকা, শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

বইমেলায়

মালেক মুস্তাকিমের ‘আমি হাঁটতে গেলে পথ জড়িয়ে যায় পায়ে’

খোলা কাগজ ডেস্ক
🕐 ৯:২৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২২

মালেক মুস্তাকিমের ‘আমি হাঁটতে গেলে পথ জড়িয়ে যায় পায়ে’

অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে তরুণ কবি মালেক মুস্তাকিমের নতুন কবিতার বই ‘আমি হাঁটতে গেলে পথ জড়িয়ে যায় পায়ে’। বইটি মেলায় এনেছে খ্যাতিমান প্রকাশনা সংস্থা অনিন্দ্য প্রকাশ।

আগামীকাল শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টায় বইটির আনুষ্ঠানিক মোড়ক উন্মোচন করবেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল। সঙ্গে থাকবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ও রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ।

মালেক মুস্তাকিম এ সময়ের একজন তরুণ ও প্রতিশ্রুতিশীল কবি। সময়ের অন্যান্য তরুণ কবিদের চেয়ে তার কবিতার ভাষা ও শরীর পৃথক। এই স্বাতন্ত্র্য খুব সহজেই তাকে অন্যদের চেয়ে আলাদা করে তুলেছে। তার কবিতার শরীর ভরা সুবাসিত শব্দের ভ্রুণ, ভাবনা ও ভাষার বিদ্রুপে আমাদের চারপাশে ঘিরে থাকা নিঃসঙ্গতা, বহুগামিতা, প্রতিদিনের কথোপকথন। তার কলমে ঘুরেফিরে উঠে আসে অনুচ্চারিত ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন আমাদের যুগল জীবনের অন্ধতা; প্রেম আসে টুপটাপ বৃষ্টির ছাঁট হয়ে, কান পাতলেই শোনা যায় ফুল ও পাথরের গোঙরানি, পাওয়া এবং না পাওয়ার মাঝখান দিয়ে হেঁটে চলা সময়ের কার্তুজ।
তার কবিতার পরতে পরতে কুয়াশার মতো ছড়িয়ে থাকে জীবনের নানাবিধ জটিলতায় গুঞ্জরিত অভিমানের ধূপ ও আগরবাতির প্রোজ্জ্বল আক্ষেপ ও উৎকণ্ঠা-

১.আমি তো পথের ধুলো, ধুলো নয় হয়তো, হয়তো ধূলির ছায়া,

ধোঁয়ার আস্তর, উপরে উঠতে উঠতে ফুরিয়ে যাওয়া মেঘমল্লার,

হয়তো তোমাকে ছুঁয়ে থাকা জানালার মুখপঞ্জি, অন্ধ আয়না।

২.তোমার শরীরে বুঁদ হয়ে পড়ে থাকি, দেখি-

পারস্পরিক চন্দ্রবিন্দুর যৌথ শিশিরে মদ আর মাংসের রেস্তোরাঁ।

৩. এক দিন জীবনের লিকারে চুমু দেব, জীবন

আমারে কিছুই দেয় নাই বলে ফুঁৎকারে উড়িয়ে

দেব কুড়িয়ে পাওয়া অর্ঘ ও উচ্ছিষ্ট।

মালেক মুস্তাকিমের কবিতা পড়তে পড়তে মনে হতে পারে কানের কাছে ফিসফিস করে কে যেন বলে যাচ্ছে বহু বছরের জমানো না বলা কথা; মনে হতে পারে আপনি বনের ভেতর দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন, আপনার নখ থেকে তুমুল বৃষ্টি, আপনি ভিজে ভিজে শুকিয়ে যাচ্ছেন, চারিদিকে ঝি ঝি পোকার ডাক, আপনি শুনছেন কিন্তু শুনতে পাচ্ছেন না। মুহুর্মুহু কী এক মগ্নতা!

১.আমাকে কেটে ভাগ করে দেই

সম্ভ্রমের বিপরীত বৃন্তে, আমাকে জোড়া লাগাই

তোমার মঞ্জুরিত কল্লোলে, ঘূর্ণিতে ফেনায়।

কী এক খেলায় মেতেছি আমরা- না প্রেম, না ঘৃণা, না শুশ্রুষা।

২.কল্পনায় যে এসেছিল পরিপূর্ণ, তাকে চাই মুষ্ঠিভরে,মৃত্যুর সমান।

এমন অসংখ্য মন মাতানো, মনোমুগ্ধকর পংক্তি নিয়ে অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে তরুণ কবি মালেক মুস্তাকিমের কাব্যগ্রন্থ ‘আমি হাঁটতে গেলে পথ জড়িয়ে যায় পায়ে’।

উল্লেখ্য, মালেক মুস্তাকিম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী। বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের প্রশাসন ক্যাডারের ৩০তম ব্যাচের মেধাবী ও চৌকস এ কর্মকর্তা বর্তমানে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব হিসেবে কর্মরত। এখন পর্যন্ত তার প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের সংখ্যা ৬। এ ছাড়া গতবছর অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ ‘একান্ত পাপগুচ্ছ’ পাওয়া যাচ্ছে অন্যপ্রকাশের প্যাভিলিয়নে।

 
Electronic Paper