ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪ | ৩ আষাঢ় ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে মারধর, গ্রেফতার ২

রোকনুজ্জামান বাপ্পি, নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়
🕐 ৭:৫৭ অপরাহ্ণ, মে ২১, ২০২৩

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে মারধর, গ্রেফতার ২

শনিবার (২০ মে) গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে স্থানীয় কয়েকজন দুর্বৃত্তকে মাদক সেবনে বাধা দেওয়া ও বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে তাদের থেকে মারধরের শিকার হয় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী। আহত শিক্ষার্থীদের নাম রিয়াজুল ও লিংকন এবং তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী বলে জানা যায়।

 

এর প্রতিবাদে আজ রোববার দুপুর দেড়টার সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে স্থানীয়দের প্রভাবমুক্ত ও নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবিতে মানববন্ধনে জড়ো হয় অসংখ্য সাধারণ শিক্ষার্থীরা। নিরাপদ ক্যাম্পাস চাই, বহিরাগতদের জায়গা নাই’, ‘লোকালদের ভয়ে প্রশাসন চুপ কেন’, ‘মাদকমুক্ত ক্যাম্পাস চাই', ‘ক্যাম্পাসের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে কে'সহ নানা প্রতিবাদী প্ল্যাকার্ড নিয়ে মানববন্ধন করেছেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ সময় স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন চত্বর।

মানববন্ধনে উপস্থিত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার প্রধান মানববন্ধনকারীদের আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন এবং নিজে বাদী থেকে স্থানীয় ত্রিশাল থানায় মামলাও করেন। মামলার প্রেক্ষিতে ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

এ ব্যাপারে প্রক্টর ড. উজ্জ্বল কুমার প্রধান বলেন, গতকালের ঘটনাটি সম্পর্কে অবগত হওয়ার সাথে সাথেই আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি থেকে আমাদের শিক্ষার্থীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি এবং পাশাপাশি অজ্ঞাতনামা ১০ জন ও ২ জনকে প্রধান আসামি করে ত্রিশাল থানায় একটি অভিযোগও দায়ের করেছি। সকল আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর আসামীদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এরকম যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা সবসময় নিরাপদ এবং কেউ যদি তাদের অনিরাপদ করার চেষ্টা করে তবে আইনি আওতায় আসতে হবে।

ত্রিশাল থানার ওসি মাইনুদ্দিন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল বডি থেকে যে মামলা হয়েছে, সেই মামলায় ইতোমধ্যে দুজন গ্রেফতার হয়েছে। এবং তাদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আর বাকিদের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে এবং খুব শীঘ্রই তাদের ধরা হবে।

 
Electronic Paper