ঢাকা, বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ১৯ মাঘ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে ‘সৈকত বাহাদুরের’ মৃত্যু

চকরিয়া প্রতিনিধি
🕐 ৭:০৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০২২

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে ‘সৈকত বাহাদুরের’ মৃত্যু

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ডুলাহাজারাস্থ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে হঠাৎ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে একটি পুরুষ হাতির মৃত্যু হয়েছে। এই হাতির নাম রাখা হয়েছিল ‘সৈকত বাহাদুর’। তার বয়স প্রায় ৩২ বছর।

গতকাল সোমবার বিকেলের দিকে খাবার খাওয়ার সময় পার্কের ভেতরে হাতির গোদা নামক স্থানে মারা যায়। ময়নাতদন্ত শেষে রাতে হাতিটিকে মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়েছে।

সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক মো. মাজহারুল ইসলাম হাতির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পার্ক কর্তৃপক্ষ জানায়, সোমবার বিকেলে ৪টার দিকে পার্কের হাতির গোদায় খাবার (কলাগাছ) গ্রহণরত অবস্থায় হঠাৎ মাটিয়ে লুটিয়ে পড়লে উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা সমর রঞ্জন বড়ুয়াকে পার্কে আনা হয়। এ সময় পার্কের ভেটেরিনারী সার্জন হাতেম সাজ্জাদ জুলকার নাইনকে সঙ্গে নিয়ে উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা হাতিটির শরীর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়, হাতি সৈকত বাহাদুর হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছে।

হাতির মাহুত মো. ফারুক হোসেন বলেন, বিকেল পৌনে চারটার দিকে হাতিটি স্বাভাবিক অবস্থায় চারটি কলাগাছ ও চারটি মিষ্টিকুমড়া খেয়েছিল। এরপর পানিও খায়। কিছুক্ষণ পর হাতিটি হঠাৎ মাটিতে ঢলে পড়ে।

সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক মো. মাজহারুল ইসলাম এ প্রতিবেদককে জানান, হাতিটির মাহুত মো. ফারুক হোসেন ঘটনার পর আমাকে মুঠোফোনে বলেছে সৈকত বাহাদুর হাতিটি মাটিতে লুটিয়ে পড়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে সেখানে ছুটে যাওয়াসহ ডাক পাঠানো হয় উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তাকে। পরে প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা এসে হাতির পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্রাথমিক ধারণা করেন হাতিটি হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছে।

তিনি বলেন, পুরুষ হাতি সৈকত বাহাদুর মৃত্যুর ঘটনায় থানায় রাতে একটি সাধারণ ডায়েরি রুজু করা হয়। সেই সাথে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে অবহিত করা হয়েছে। রাত ৯টার দিকে হাতিটিকে মাটিতে গর্ত করে পুঁতে ফেলা হয়েছে বলে জানান।

 
Electronic Paper