ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪ | ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

বান্দরবানে গঙ্গা পূজা ও বারুনী স্নান অনুষ্ঠিত

কৌশিক দাশ, বান্দরবান
🕐 ৩:৪১ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৯, ২০২৩

বান্দরবানে গঙ্গা পূজা ও বারুনী স্নান অনুষ্ঠিত

বান্দরবানে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে সনাতনী সম্প্রদায়ের গঙ্গা পূজা ও বারুনী স্নান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (১৯ মার্চ) সকালে বান্দরবানের আর্শীবাদ সংঘের আয়োজনে জেলা সদরের সাঙ্গু নদীর তীরে নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই গঙ্গা পূজার শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে গঙ্গা পূজা, মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন, ভজন র্কীতন, মহাপ্রসাদ আস্বাদন, গঙ্গা গৌর আরতি, হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলনসহ নানা ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

এসময় সনাতনী সম্প্রদায়ের শতশত পূর্ণার্থীগণ সাঙ্গু নদীতে গঙ্গা মায়ের চরণে ভক্তি নিবেদন করে পাপ মুক্তির আশায় নদীর স্বচ্ছ পানিতে নেমে বারুনী স্মানে অংশ নেয়। জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন দুর্গম এলাকার শতশত সনাতন ধর্মালম্বী নর-নারী নদীতে গঙ্গা স্মানের পাশাপাশি গঙ্গা মায়ের জন্য পূজা ও আগামী দিনের সুখ শান্তি কামনা করে।

বান্দরবানের কালাঘাটা থেকে গঙ্গা পূজা উপলক্ষ্যে নদীতে বারুনী স্নানে অংশ নিতে আসা রাধারানী দাশ বলেন, এই দিনটি আমাদের জন্য অত্যন্ত মঙ্গলের। আমরা প্রতিবছর এই দিনটির অপেক্ষায় থাকি ,এই মাঙ্গলিক দিনে আমরা নদীতে বারুনী স্নান করে গঙ্গা মাকে পূজা নিবেদন করে থাকি আর আমাদের পরিবারের সকলের মঙ্গল প্রত্যাশায় মায়ের কাছে প্রার্থনা করি।

বনরুপার বাসিন্দা নারায়ন দাশ বলেন, এই দিনে নদীতে বারুনী স্নান করা আর পূজা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারায় নিজেকে ধন্য মনে হচ্ছে। পরিবার পরিজন নিয়ে নদীতে বারুনী স্নানে অংশ নেয়া আর গঙ্গা মাকে শত শত প্রণাম জানানোর মধ্য দিয়ে আমাদের পাপ কর্ম থেকে আমরা যাতে বিরত থাকতে পারি সেই কামনা করি।

গঙ্গা পূজা আয়োজক সংগঠন আশীর্বাদ সংঘ এর সাধারণ সম্পাদক বিকাশ দে জানান, প্রতি বছরই বান্দরবানের সাঙ্গু নদীর পাড়ে সনাতন ধর্মালম্বীদের গঙ্গা পূজা ও বারুণী স্মান উপলক্ষ্যে আর্শীবাদ সংঘ বর্ণাঢ্য আয়োজন করে থাকে আর মাঙ্গলিক এই অনুষ্ঠানে হাজার হাজার পূর্ণাথীর সমাগম হয় আর এবছর ও প্রচুর ভক্ত এর সমাগম হয়েছে। তিনি বলেন, নানা ধর্মীয় আয়োজন শেষে ২০ মার্চ (সোমবার) সকাল ৮টায় পুষ্পাঞ্জলী শেষে সাঙ্গু নদীতে প্রতিমা বিসর্জন এর মাধ্যমে এবারের বর্ণাঢ্য আয়োজন সমাপ্তি ঘটবে।

 
Electronic Paper