ঢাকা, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪ | ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে রাজউকের মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ

অনলাইন ডেস্ক
🕐 ২:৫৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০২৪

জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে রাজউকের মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ

রাজধানীর রামপুরা, খিলগাঁও এবং রমনা এলাকায় অনুমোদিত নকশা অনুযায়ী ইমারত নির্মাণ করতে জনসচেতনতামূলক মাইকিং প্রচারণা ও লিফলেট বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ।

আজ ২৩ জানুয়ারি, মঙ্গলবার রাজউক জোন-৬/১ অন্তর্ভুক্ত এলাকায় সকাল থেকে এমন জনসচেতনতামূলক মাইকিং প্রচারণার দৃশ্য দেখা গিয়েছে।

প্রচারণায় ইমারত বিধিমালার প্রতিপালন যোগ্য বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় উল্লেখ করে জনসচেতনতা তৈরি করতে মাইকিং করা হয় এর মধ্যে অনুমোদিত নকশা ব্যতিত ইমারত নির্মাণ থেকে বিরত থাকা, অনুমোদিত নকশা অনুযায়ী নির্মাণাধীন ভবনের সকল নিয়ম কানুন যথাযথ ভাবে মেনে চলা ।

নির্মাণ কাজে সম্পৃক্ত সকল শ্রমিকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সহ সাইট বেষ্টনী তৈরি করা।

এছাড়াও যে সকল ভবন মালিক প্রচারণায় উল্লেখ করা বিষয় গুলো অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে ইমারত নির্মাণ বিধিমালা অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট আইনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়।

জনসচেতনতামূলক মাইকিং প্রচারণার ও লিফলেট বিতরণের বিষয়ে রাজউক জোন-৬/১ এর অথরাইজড অফিসার প্রকৌশলী জোটন দেবনাথ বলেন,রাজউক চেয়ারম্যান মহোদয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী বাসযোগ্য নিরাপদ নগরী গড়তে ভবন মালিকদের সচেতনতা বৃদ্ধিতে এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আমাদের জোন পরিচালক মহোদয়ের নির্দেশনা মোতাবেক আমরাও আমাদের দায়িত্বাধীন এলাকায় সারা দিন প্রচারণা করেছি।এর মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে যারা নকশা নিয়ে এর নিয়ম কানুন মানছে না তাদের নিয়ম প্রতিপালনে উদ্ভূদ্ধ করা।

তিনি আরো বলেন,ইমারত বিধিমালা পরিপূর্ণ ভাবে বাস্তবায়নে তাদের সচেষ্ট করে তুলতে হবে। ভবন মালিকদের মাঝে সচেতনতা তৈরি হলে বৈধ ভাবে যেমন ইমারত নির্মাণের হার বাড়বে তেমনি করে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন ও দূর্ঘটনার হার কমে আসবে। এছাড়াও অগ্নি নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে আমরা প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করে সচেতনতা বৃদ্ধি করার চেষ্টা করে আসছি।

পরিকল্পিত নিরাপদ আবাসস্থল আমাদের প্রত্যেকের কাম্য।আর সেই বসবাসযোগ্য ইমারত নির্মাণে সহায়তা করাই আমাদের মূল লক্ষ্য।

মাইকিং এবং লিফলেট বিতরণের সচেতনতার বৃদ্ধিতে আরো উপস্থিত ছিলেন সহকারী অথরাইজড অফিসার মোঃ সাব্বিরুল ইসলাম ,প্রধান ইমারত পরিদর্শক বাসু দেব ও বেলাল হোসেন, ইমারত পরিদর্শক মোঃ ফিরোজ আলম, সুমন আহমেদ,মোঃ সাইফুল ইসলাম, মো: ইমরান শেখ, মোঃজিয়াউদ্দিন,মোঃ কামরুজ্জামান, নাজিম উদ্দিন,সুব্রত কর্মকার,নাহিদুল ইসলাম,বিশ্বজিৎ সিংহসহ রাজউকের অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

 
Electronic Paper