ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪ | ২ শ্রাবণ ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

তরুণদের দিকে তাকিয়ে আছে দেশের জনগণ : রিজভী

নিজস্ব সংবাদদাতা
🕐 ৭:২১ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৯, ২০২৪

তরুণদের দিকে তাকিয়ে আছে দেশের জনগণ : রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব আজ হুমকির মুখে। সরকার দুর্নীতি আর লুটপাটের মাধ্যমে রাজকোষ খালি করে দিয়েছে। তাই দেশের জনগণ তাকিয়ে আছে তরুণদের দিকে। শেখ হাসিনার পতনের মধ্য দিয়ে আনন্দ করবে যুবদল তাই দেশের জনগণ তাকিয়ে আছে তরুণদের দিকে। দেশজুড়ে যে অনাচার চলছে তার থেকে মুক্তি পেতে যুব সমাজকেই এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি বলেন, যে ব্যক্তি বা দম্পতির বিয়ে হয়েছে স্বাধীনতার ৭ বছর পরে তার সন্তান নাকি মুক্তিযোদ্ধা! তাদেরকে নাকি চাকরি দিতে হবে? স্বাধীনতার এত বছর পরও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের চাকরি দেওয়া কি মামা বাড়ির আবদার। এই অনাচার শেখ হাসিনা তৈরি করেছেন। মেধাবীদের বাদ দিয়ে নিজেদের মেধাহীন লোককে নিয়োগ দেওয়ার চেষ্টা করছে সরকার। আসলে তারা মেধাহীনদের দিয়ে পদদলিত করে এমন এক দেশ গঠন করতে চায় যেটা বাংলাদেশ নয়, ওটা হবে বাংলালীগ। আমরা দেশকে বাংলালীগ হতে দিতে চাই না। আসলে ক্যাডার সার্ভিস তথা প্রথম শ্রেনির চাকরিতে ও বিভিন্ন সায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগকে ঢোকানোর পাঁয়তারা করছে সরকার। তাই কোটা নিয়ে রাজনীতি করছে সরকার।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে যুবদলের নবগঠিত কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিলের আগে তিনি এসব কথা বলেন।

যুবদলের নতুন কমিটিকে তারুণ্যদীপ্ত আখ্যা দিয়ে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, ডামি নির্বাচনের সরকার দেশের মানুষের সকল অধিকার কেড়ে নিয়েছে। দুর্নীতি আর লুটপাটের মাধ্যমে রাজকোষ খালি করে দিয়েছে। শেখ হাসিনার পতনের মধ্য দিয়ে আনন্দ করবে যুবদল। এর মধ্য দিয়ে অনেকদূর যেতে হবে। কারণ দেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার, জনগণের ভোটাধিকার পুনরুদ্ধার, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা পুনরুদ্ধারসহ অনেক কাজ করতে হবে যুবদলের নতুন নেতৃবৃন্দকে। আমি বিশ্বাস করি যুবদলের নতুন কমিটির সভাপতি মুন্না ও সাধারণ সম্পাদক নয়নের নেতৃত্বে সেই কাজ সম্ভব হবে। তারা যুবদলের পরীক্ষিত কান্ডারি। তারা তরুণদের নেতৃত্ব দিয়ে জাগ্রত করবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে যুবদলের ৬ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় আংশিক কমিটি গঠন করেছে বিএনপি। যুবদলের নতুন সভাপতি হয়েছেন আব্দুল মোনায়েম মুন্না এবং সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন। তাদের মধ্যে মুন্না বিলুপ্ত কমিটির সাধারণ সম্পাদক এবং নয়ন সহসভাপতি ছিলেন। নতুন আংশিক কমিটির অন্যরা হলেন- সিনিয়র সহসভাপতি রেজাউল করিম পল, ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন তারেক, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান জুয়েল ও দপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম সোহেল। গণমাধ্যমে পাঠানো বিএনপির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- পরবর্তীতে জাতীয়তাবাদী যুবদলের পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষিত হবে।

যুবদলের নতুন নেতৃবন্দ গতকাল বিকেলে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গেলে যুবদল ও অন্যান্য সংগঠনের নেতাকর্মীরা তাদেরকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান। এসময় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি, প্রচার সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, গবেষণা সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, মহাগর বিএনপির রফিকুল আলম মজনু, উত্তর বিএনপির সাইফুল আলম নীরব, আমিনুল হক, যুবদলের নতুন সভাপতি আবদুল মোলায়েম মুন্না, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন, সিনিয়র সহ-সভাপতি রেজাউল করিম পল, ১নং যুগ্ম সম্পাদক বিল্লাল হোসেন তারেক, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান জুয়েল, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দীন নাছির, যুবদলের সাবেক নেতা গিয়াস উদ্দিন মামুন, মেহেবুব মাসুম শান্ত, ওমর ফারুক কাওসারসহ সহস্রাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। পরে যুবদলের কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে এবং খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়।

 
Electronic Paper