কেন হয়?

ঢাকা, রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১১ আশ্বিন ১৪২৭

কেন হয়?

আল সানি ১২:৩১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৮, ২০২০

print
কেন হয়?

সব পিঁপড়া এক রেখায় চলে কেন?
পিঁপড়া সামাজিক জীব। তারা একটা দল গঠন করে খুব সুসংহত সামাজিক জীবনযাপন করে। লাল পিঁপড়া সাধারণত বাড়ির দেয়ালে বাসা বাঁধে এবং খাদ্যের সন্ধানে অনেক দূরত্ব অতিক্রম করে থাকে। মানুষের মতো তাদের মানচিত্র বা নেভিগেশনাল সিস্টেম নেই, তাই একে অপরকে খুঁজে পেতে তাদের অবশ্যই বিকল্প ব্যবস্থার ওপর নির্ভর করতে হয়। পিঁপড়া সোজা হয়ে চলে তা কিন্তু না, তারা একে অপরকে অনুসরণ করে; সেটা সোজা বা বক্র যেকোনো পথেই হতে পারে। একটি পিঁপড়া যখন খাবার খুঁজে পায়, তখন খাবারটির একটি ছোট টুকরা সে নিজে বহন করে এবং খাবারের স্থানের পথ থেকে বাসার পথ অব্ধি ফেরোমন নামক রাসায়নিক গন্ধ ছেড়ে দেয়। পিঁপড়াগুলো সেই গন্ধ অনুসরণ করে চলাচল করে। অবশ্য মাঝে মধ্যে হাঁটার গতির তারতম্যের কারণে হাঁটতে হাঁটতে সংঘর্ষও ঘটে থাকে।

গাছের কা-ে সাদা রঙ করা হয় কেন?
গাছের কাণ্ডে সাদা রঙ দেওয়া মূলত গাছরক্ষার একটি প্রাচীন পদ্ধতি যা প্রায়শই দেখা যায়। এর বেশ কয়েকটি লক্ষ্য রয়েছে, তবে এর মধ্যে প্রধান হলো নতুন এবং নরম কাণ্ডে গাছগুলোকে রোগ, পোকামাকড় এবং ছত্রাক থেকে রক্ষা করা। এই পদ্ধতিকে হোয়াইট ওয়াশিংও বলা হয়। সাদা পেইন্ট সূর্যের আলো প্রতিফলিত করে এবং ছালগুলোকে শীতল রাখে। শরৎ ও শীতকালে হঠাৎ তাপমাত্রা পরিবর্তনের মাধ্যমে গাছের নিচের ছালের ধ্বংসকে রোধ করতে গাছের কা-কে সাদা ল্যাটেক্স রঙ করা হয়। অবশ্য অনেক সময় তৃণভোজী পশুর হাত থেকে রক্ষা করতেও সাদা রঙ করে অনেকেই।

ইমোজিগুলো হলুদ কেন?
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বার্তা পাঠানোর সময় আমরা বিভিন্ন ধরনের ইমোজি ব্যবহার করি। খেয়াল করলে দেখা যাবে বেশিরভাগ ইমোজিগুলোই হলুদ। তবে এর পেছনে সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ নেই। এটি গুগল, অ্যাপল ও ফেসবুক এবং অন্যান্য টেক জায়ান্টদের নিজস্ব ব্যক্তিগত পছন্দ। তবে হাসি, কান্না ইত্যাদির মুখাবয়বের ইমোজিগুলো হলুদ কেন তার একটি কারণ ব্যাপকভাবে প্রচলিত।

সাধারণত শ্বেতাঙ্গ বা কৃষ্ণাঙ্গদের মাঝে কোনো প্রকার বৈষম্য না ছড়ায় সেজন্য ডিফল্টরূপে হলুদকে বেছে নেওয়া হয়েছে। তাছাড়া হলুদ ব্যাকগ্রাউন্ডে মুখের অনুভূতিগুলো সহজেই বোঝা যায়। শিল্পীদের মতে হলুদ রঙ কোনও ব্যক্তির মেজাজ সবার সামনে সবচেয়ে ভালোভাবে প্রতিফলিত করে থাকে।