মাটির ময়না

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬

তোমাদের সিনেমা

মাটির ময়না

আরাফাত রাজ ৩:৩৩ অপরাহ্ণ, জুন ০৮, ২০১৯

print
মাটির ময়না

আনু মাদ্রাসার একজন ছাত্র। আনুর বাবা একজন ধার্মিক লোক। তিনি তার ছোট ছেলে অর্থাৎ আনুকে পড়াশোনার জন্য মাদ্রাসায় পাঠিয়ে দেন। গ্রামের মুক্ত জীবন থেকে আনু এসে পরে মাদ্রাসার বন্দি জীবনে। সেখানে তার সাথে পরিচয় হয় রোকনের সাথে। দুজনে খুব ভাল বন্ধু হয়ে যায় খুব অল্প সময়ে। মাদ্রাসায় মানিয়ে নেয়ার জন্য দুজনকে অনেক কষ্ট করতে হয়।

পুরো চলচ্চিত্রটিতে মুক্তিযুদ্ধের শুরুর দিকের ঘটনা ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। ধর্মীয় শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য মিলিয়ে তৈরি মাটির ময়না চলচ্চিত্রটি। ধর্ম ও যুদ্ধের কারণে একটি পরিবার কিভাবে ধ্বংস হয়ে যায় তা দেখানো হয়েছে।

সব মিলিয়ে একটি বাস্তব ধর্মী চলচ্চিত্র এটি। চলচ্চিত্রটি দেখে তোমরা সেই সময়ের সামাজিক প্রেক্ষাপট এবং মুক্তিযুদ্ধ সমন্ধে জানতে পারবে। সিনেমাটি ২০০২ সালে মুক্তি পায়। এর পরিচালক ছিলেন তারেক মাসুদ এবং প্রযোজক ছিলেন ক্যাথরিন মাসুদ। সিনেমাটির দৈর্ঘ্য ৯৮ মিনিট। ছবিটির সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন মৌসুমী ভৌমিক।

মাটির ময়না সিনেমাটি ২০০২ সালে কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ফিপরেস্কি ইন্টারন্যাশনাল ক্রিটিকস এওয়ার্ড, ২০০৩ সালে পাকিস্তানে কার ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সেরা চলচ্চিত্র সহ অন্য দুটি পুরষ্কার, সে বছরই চ্যানেল আই ফিল্ম এওয়ার্ডে সেরা চলচ্চিত্র ও সেরা পরিচালক পুরষ্কার, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি কর্তৃক সেরা চলচ্চিত্র সহ আরো পাঁচটি পুরষ্কারে ভূষিত হয়।

এছাড়াও এটি বিদেশি ভাষার অস্কার পুরষ্কারের জন্য মনোনীত বাংলাদেশের প্রথম মনোনীত চলচ্চিত্র। তাই বন্ধুরা দেরি না করে এখনই দেখতে বসে যাও বিখ্যাত সিনেমাটি।