ওরা জিপসি পরিব্রাজক

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৬ আশ্বিন ১৪২৬

ওরা জিপসি পরিব্রাজক

ফারুক হোসেন ১০:১১ পূর্বাহ্ণ, জুন ০১, ২০১৯

print
ওরা জিপসি পরিব্রাজক

ছোট্ট বন্ধুরা, তোমরা তো কত পরিব্রাজক বা হন্টকদের নাম শুনেছ তাই না? আজ আমি তোমাদের এমন এক পরিব্রাজকদের কথা বলব যারা কিনা এক জায়গায় বেশিদিন থাকতেই পারে না! বেশিদিন থাকলেই নাকি ওদের সে জায়গার প্রতি বড্ড মায়া পড়ে যায়। তাই মায়া বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই ওরাও কেটে পড়ে, অন্য কোথাও চলে যায়। কী অদ্ভুত ওরা তাই না?

জিপসি হলো তেমনি একদল পরিব্রাজক জাতি। ওরা পুরো পরিবার আর তাঁবু নিয়ে এখানে সেখানে ঘুরে বেড়ায়। অনেক সময় ওদের সঙ্গে ঠেলাগাড়ি বা চাকাওয়ালা গাড়িও থাকে। ওদের যাযাবরও (Nomads) বলা যেতে পারে। ওরা অনেকটা আমাদের দেশের বেদে সম্প্রদায়ে মতো।

রাশিয়ায় আবার তৃণভূমিতে কিরঘিজ আর কালোমুখ বলে এক ধরনের যাযাবর জাত আছে। ওদের নামগুলোও কিন্তু বেশ বড়। শুনলে মনে রাখা যায় না এমন। আসলে এটাও কিন্তু ওদেরই একটা চালাকি! যে কেউ নাম শুনলেই যেন খুব তাড়াতাড়ি ওদের ভুলে যেতে পারে! কারণ ওরা কোনো মায়ার বাঁধনে নিজেদের বাঁধতে চায় না।

তবে শুনলে তোমরা অবাক হবে এই কিরঘিজ মানেই কিন্তু পশু-চোর!

এটা বোধহয় ওরা জানেই না! তবে যাই বলি না কেন! বিখ্যাত কিন্তু এই জিপসি জাতটাই। জিপসিদের চেহারাও কিন্তু ভারী সুন্দর। এশিয়া, আমেরিকা, এমনকি ইউরোপের অনেক জায়গাতেই ওদের দেখা যায়। অনেকটা টং তুলে ওরা দিব্যি কাটিয়ে দেয় দিবস-রজনী। ওদের সঙ্গে থাকে এক ধরনের পোষা কুকুর আর অদ্ভুত অদ্ভুত সব জিনিস!

শোনায় যায়! ওদের কাছে নাকি হাড়গোড় এমনকি মানুষের মাথার খুলিও থাকে। তাই দিয়ে ওরা নাচ গান আর জাদু বিদ্যার ভেলকিবাজি দেখিয়ে মানুষের কাছ থেকে টাকা তোলে। দুষ্টু মানুষগুলো যখনি ওদের দিকে এগিয়ে আসতে চায় ওরা সঙ্গে সঙ্গেই পোষা কুকুরগুলোকে লেলিয়ে দেয়। ওদের গায়ের রং ফর্সা হলেও চোখ আর চুলগুলো বাংলাদেশিদের মতোই কালো।

ওদের আরেকটি ভালো বিদ্যা জানা আছে তা হলো-চুরি চামারি! ওরা চোখের পলকেই পকেট থেকে টাকা চুরি করতে পারে। এজন্য ওরা এমন কায়দা শিখেছে, মনে হতে পারে এত আজব জাদুবিদ্যা! আসলে কিন্তু তা নয়, ওদের হাতের কারসাজিই বলতে পার। জিপসি জনগোষ্ঠীকে অনেক আগে ডাকা হতো রোমা কিংবা রোমানি বলে।