খেলার নাম ‘বাঘবন্দি’

ঢাকা, রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৭ আশ্বিন ১৪২৬

খেলার নাম ‘বাঘবন্দি’

ইচ্ছেডানা ডেস্ক ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ০৯, ২০১৯

print
খেলার নাম ‘বাঘবন্দি’

জানোই তো বাঘ আমাদের জাতীয় পশু। বাঙালির লোকজীবনে নানাভাবে জড়িয়ে আছে এই বাঘ। বাংলা গল্প, ছড়া, শ্লোক, হাস্যরসের কাহিনী ও পুরাণে বাঘের দেখা মেলে। এমনকি বাঘ নিয়ে আছে লোকজ খেলাও। যেমন- বাঘবন্দি খেলা। এ খেলাকে অঞ্চলভেদে ‘বাঘ ছাগল খেলা’ বা ‘বাঘ বকরি খেলা’ বলা হয়। ষোল ঘুঁটির আরেকটি রূপান্তর হলো বাঘ ছাগল খেলা। এ খেলা অনেকটা দাবা খেলার মতো, আত্মরক্ষা ও আক্রমণের প্রতি লক্ষ্য রেখে ঘুঁটির চাল দিতে হয়। এ খেলার জন্য প্রয়োজন দুজন খেলোয়াড়। সরঞ্জাম হিসেবে লাগবে একটি ছক এবং দশটি করে দুই ধরনের বিশটি ঘুঁটি। মাটির ওপর দাগ কেটে বাঘবন্দির ঘর বা ছক তৈরি করা হয়।

খেলার নিয়ম হলো বাঘ সুযোগ পেলেই একটি করে ছাগল খাবে। ছাগল কৌশলে বাঘের পেটে যাওয়ার পরিবর্তে তাকে বন্দি করার চেষ্টা করবে। ছকে নির্ধারিত চারটি জায়গায় পাঁচটি করে ছাগল রাখা হয়। আর ছাগলের মাঝে দুটি ঘরে রাখা থাকবে দুই বাঘ। প্রথমে ছাগলকে একটি একটি করে ঘর বদল করে সতর্কতার সঙ্গে বাঘের চারদিকে ছড়িয়ে পড়তে হয়। অর্থাৎ প্রতিটি ছাগলের ঘরে পেছনের ঘরে যেন আরও একটি ছাগল থাকে। তা না হলে পাশাপাশি কোনাকুনি, সামনাসামনি যে কোনও দিকে বাঘ কোনও ছাগলকে টপকে পেছনের ফাঁকা জায়গায় বসে সেই ছাগলটিকে খেয়ে ফেলে। ফলে বাঘকে বন্দি করা দুঃসাধ্য হয়ে পড়ে।

আজই তোমার বন্ধুকে নিয়ে খেলতে বসে যাও বাঘবন্দি খেলা।