ডোরাকাটা জেব্রা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬

ডোরাকাটা জেব্রা

সুমন্ত রহমান ১:০১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ০৫, ২০১৯

print
ডোরাকাটা জেব্রা

অনেকটা ঘোড়ার মতো দেখতে। ওদের গায়ের মতো সাদা-কালো ডোরা এঁকে জেব্রা পারাপারের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলেই তো ওর নাম জেব্রা ক্রসিং! জেব্রার গায়ে ডোরাকাটা দাগ এলো কোথা থেকে জানো?

গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে, আঙ্গুলের ছাপ যেমন প্রত্যেকের আলাদা, জেব্রাদের ডোরাকাটা দাগও তেমনি আলাদা। একটা জেব্রার দাগের সঙ্গে অন্য জেব্রার দাগের মিল নেই।

শিকারিদের বিভ্রান্ত করতে ক্যামোফ্লাজ হিসেবে ডোরাকাটা দাগ জেব্রার গায়ে, এমনটা বলেছিলেন বেশ কয়েকজন বিজ্ঞানী। কিন্তু এই দাগের পেছনে আদতে কোন জিন রয়েছে, তা নিয়ে রহস্য রয়েই গেছে।

২০ লাখ বছরেরও বেশি আগে জেব্রার উৎপত্তি। প্রথমে বিজ্ঞানীদের ধারণা ছিল, ওদের শরীরে ডোরাকাটা দাগ কোনো একটি কারণেই তৈরি হয়েছে আর তা হলো অভিযোজন। পরবর্তীতে আরও ১৭টি তত্ত্ব দেন বিজ্ঞানীরা।

ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া-ডেভিসের ওয়াইল্ড লাইফ বায়োলজিস্ট টিম বিভিন্ন তাপমাত্রা, অঞ্চলের ওপর ভিত্তি করে খুঁজেছেন কারণ। তাদের দাবি, বিষাক্ত সেটসিসহ অন্য মাছি তাড়ানোর জন্যই নাকি জেব্রার গায়ে ডোরাকাটা দাগ।

তাদের গবেষণা বলছে, মাছির প্রকোপ বেশি হলেই জেব্রার ডোরাকাটা দাগের ঘনত্ব বেড়েছে। নেচার কমিউনিকেশন জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে সমীক্ষার রিপোর্ট। ২০১২ সালের ইউরোপীয় বিজ্ঞানীদের একটি গবেষণাও একই তত্ত্ব জানিয়েছিল।

তবে জেব্রার গায়ে এই ডোরাকাটা দাগের পেছনে মেলানিন রঞ্জক ও জিনের ভূমিকা নিয়ে বিজ্ঞানীরা নিরন্তর গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন। সঠিক কারণটি এখনো পর্যন্ত বের হয়নি কিন্তু।