প্রেমের পরীক্ষা!

ঢাকা, শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭

প্রেমের পরীক্ষা!

ডেস্ক রিপোর্ট ১০:৩০ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১

print
প্রেমের পরীক্ষা!

প্রেমের সম্পর্ক গড়া, আবার সেই সম্পর্ক ভাঙা বর্তমান সময়ে খুবই স্বাভাবিক একটি বিষয়। তাই বিয়ের আগে প্রেমের সম্পর্ক যাচাই করে নেওয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ বলে মনে করেন অনেকে। ইউক্রেনের একটি প্রেমিক যুগল সম্প্রতি তাদের প্রেমের পরীক্ষা দিতে বেছে নিয়েছেন ভিন্ন পথ। আর এটি দেখে রীতিমতো অবাক হচ্ছেন নেটিজেনরা। অনেকেই মন্তব্য করছেন, একেই বলে প্রেমের পরীক্ষা! তাদের সম্পর্ক কতটা মজবুত তা জানার জন্য তিন মাস ধরে পরস্পরের হাত শিকল দিয়ে বেঁধে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আলেকজান্ডার ও ভিক্টোরিয়া নামের এই যুগল। কাজটির জন্য বেছে নিয়েছেন বিশেষ দিন ও স্থান।

১৪ ফেব্রুয়ারি কিয়েভের ‘ইউনিটি’ ভাস্কর্যের সামনে পরস্পরের হাত শিকল দিয়ে বেঁধেছেন তারা। এই জুটির বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছেন ইউক্রেনের ন্যাশনাল রেজিস্টার অব রেকর্ডের সঙ্গে যুক্ত ভিতালি জোরিন। তিনি বলেন, ‘এই জুটির হাতের তালু মাত্র কয়েক সেন্টিমিটার দূরে থাকবে।’

করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন চলার সময় তাদের প্রেমের সম্পর্কের শুরু। দুজনের হাত শিকল দিয়ে বেঁধে দেওয়ার আগে অবশ্য তাদের মানসিক স্বাস্থ্যেরও পরীক্ষা করে নেওয়া হয়েছে। আলেকজান্ডার বলেন, ‘আমরা রেকর্ড গড়তে চলেছি। আমাদের হাত শিকল দিয়ে বাঁধা ও প্রত্যেকটি অংশ ঝালাই করা। শেষ প্রান্তে ন্যাশনাল রেজিস্ট্রার অব রেকর্ডসের সিল রয়েছে।’ শিকল বাঁধা এই জুটির প্রথম পরীক্ষা ছিল ট্যাক্সিতে করে ৩২৫ মাইল পাড়ি দিয়ে কিয়েভ থেকে বাড়ি ফেরা। পথে টয়লেট ব্যবহারের জন্য একটি ক্যাফেতে প্রবেশ করেন। কিন্তু নারী নাকি পুরুষ টয়লেট ব্যবহার করবেন তা নিয়েও শুরু হয় জটিলতা।

পরে নারী টয়লেটে একসঙ্গে প্রবেশ করেন তারা, যা দেখে অনেকেই অবাক হন। এতে তাদের প্রাইভেসি বলে কিছু থাকবে না বলে মনে করছেন কেউ কেউ। যদিও এ নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছেন না তারা। সবকিছু মিলিয়ে এখন পর্যন্ত বিষয়টি বেশ উপভোগ করছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি ও ভিডিও প্রকাশ করে তাদের নানা অভিজ্ঞতা জানাচ্ছেন। এ ছাড়া একসঙ্গে তিন মাস কাটানোর ব্যাপারে আশাবাদী এই জুটি।