কাঠের জুতা

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১ | ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭

কাঠের জুতা

ডেস্ক রিপোর্ট ১০:৪৩ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০২১

print
কাঠের জুতা

নেদারল্যান্ডস ভ্রমণ করেছেন অথচ ডাচ ক্লগ সম্পর্কে জানবেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না। পুরো বিশ্বের কাছে পরিচিত এই ডাচ জাতি। তাদের রঙ-বেরঙের টিউলিপ, ডাচ চিজ, উইন্ডমিল আর এই ঐতিহ্যবাহী কাঠের জুতার জন্য। এই কাঠের জুতাকে বলা হয় ‘ক্লোম্পেন’ ডাচ ভাষায়। মধ্যযুগ থেকে যা নেদারল্যান্ডসে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। নেদারল্যান্ডসের ১২টি প্রদেশের যেকোনো ট্যুরিস্ট শপে গেলেই দেখা মেলে চাবির রিং, কাপড়, হ্যান্ডব্যাগসহ নানা ধরনের স্যুভেনিরে রয়েছে ডাচ ক্লগ নামের কাঠের এই রঙিন জুতার ছবি। নেদারল্যান্ডসেই শুধু এই কাঠের জুতার ব্যবহারের ইতিহাস রয়েছে তেমনটা নয়। বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন ধরনের কাঠের জুতা ব্যবহার করা হয়। যেমন জাপানের ‘গেটা’ এবং স্পেনের ‘আলবারকাস’।

তবে গঠনশৈলীর দিক থেকে সামনের দিকে সুচালো পায়ের আঙুল এবং হাত দিয়ে আঁকা কাঠের জুতা সাধারণত ‘ডাচ ক্লগ’ হিসেবে স্বীকৃত। ডাচ সংস্কৃতিতে কাঠের জুতা গভীরভাবে যুক্ত। তাছাড়া এই কাঠের জুতা গ্রামীণ অঞ্চলের কিছু মানুষ এখনো ব্যবহার করেন। ইতিহাস থেকে জানা যায়, ১২০০ শতকে কাঠের তৈরি জুতার ব্যবহার শুরু হয় নেদারল্যান্ডসে। কারখানার শ্রমিক, কারিগর, কৃষক, জেলেদের পা রক্ষার জন্য নকশা করা হয়েছিল এই জুতার।