প্রাচীন কফিনের সন্ধান

ঢাকা, রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭

প্রাচীন কফিনের সন্ধান

ডেস্ক রিপোর্ট ১০:০৯ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০২১

print
প্রাচীন কফিনের সন্ধান

মিসরে নতুন করে প্রাচীন সম্পদের সন্ধান পেয়েছেন গবেষকরা। ওই প্রাচীন নিদর্শনগুলোর মধ্যে তিন হাজারের বেশি পুরনো অর্ধ শতাধিক কফিনও রয়েছে। গত রোববার এই তথ্য জানিয়েছে মিসর। দেশটির প্রখ্যাত প্রত্বতত্ত্ববিদ জাহি হাওয়াস এই আবিষ্কারকে মিসরের ইতিহাসের ‘নতুন অধ্যায়’ বলে মন্তব্য করেছেন। বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে, মিসরের প্রত্বতত্ত্বের জন্য বিখ্যাত সাকারা। রাজধানী কায়রোর খুব কাছে অবস্থিত সাকারা প্রাচীন মিসরের রাজধানী মেমফিসের বিশাল সমাধিক্ষেত্র। বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ মেমফিসে এক ডজনের বেশি পিরামিড, পুরনো বিহার ও প্রাণী সমাধিস্থান রয়েছে।

সাকারায় পুরাকীর্তি নিদর্শনের সন্ধানকারী দলের নেতৃত্ব দেন প্রত্বতত্ত্ববিদ জাহি হাওয়াস। মিসরের ওল্ড কিংডমের ষষ্ঠ রাজবংশের প্রথম শাসক কিং তেতির পিরামিডের কাছে প্রাচীন ওই নিদর্শনের সন্ধান পায় দলটি। রোববার এএফপিকে হাওয়াস বলেন, সমাধিক্ষেত্রের একটি গর্তে ৫০টির বেশি পুরনো কাঠের কফিন পাওয়া গেছে। কফিনগুলো নিউ কিংডমের সময়কালের (খ্রিস্টপূর্ব ১৬০০ থেকে ১১০০)। এই আবিষ্কার সাকারা এবং বিশেষ করে নিউ কিংডমের ইতিহাস নতুন করে লেখা হবে। মিসরে নিউ কিংডম শুরু হয়েছিল তিন হাজার বছর আগে। হাওয়াস বলেছেন, তার দল সমাধিক্ষেত্রে মোট ২২টি সমাধি গর্ত আবিষ্কার করেছে। এর মধ্যে একটি ছিল এক সেনা সদস্যের। তার মরদেহের পাশে যুদ্ধাস্ত্র রাখা ছিল। ওই সমাধিক্ষেত্রে পাথরের একটি কফিনও পাওয়া গেছে। এ ছাড়া প্রায় পাঁচ মিটার লম্বা একটি প্যাপিরাস, মাস্ক, কাঠের নৌকা, প্রাচীন মিসরীয়দের খেলার যন্ত্রের সন্ধান পাওয়া গেছে। তিনি আরও বলেন, এটা একটি বিরল এবং নতুন আবিষ্কার। কারণ, এসব প্রাচীন নিদর্শনগুলোর বেশির ভাগই নিউ কিংডমের আগের সময়কালের।