ভিক্ষুকের রাজকোষ

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৫ কার্তিক ১৪২৬

ভিক্ষুকের রাজকোষ

ডেস্ক রিপোর্ট ১১:১১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১০, ২০১৯

print
ভিক্ষুকের রাজকোষ

রাজার ঘরে যে ধন আছে, আমার ঘরেও সে ধন আছে। রাজা আর পাখির সেই গল্প যেন বাস্তবের মাটিতে। ভারতের মুম্বাইয়ে এক ভিক্ষুক কি-না দশ লাখ টাকার মালিক। ঘরেই বিভিন্ন স্থানে গচ্ছিত ছিল দেড় লাখ টাকার কয়েন।

বিভিন্ন ব্যাংকের ফিক্সড ডিপোজিটে জমা আরও আট লাখ ৭৭ হাজার টাকা। সব মিলিয়ে মোট সম্পত্তি কমবেশি দশ লাখ টাকা। যা দেখে হতবাক মুম্বাই পুলিশ। যদিও, জীবদ্দশায় এই সম্পত্তি ভোগ করতে পারেননি ওই ভিক্ষুক।

সম্প্রতি ট্রেনে কাটা পড়ে মারা যাওয়া বিরজু চন্দ্র আজাদের ঝুপড়িতে গিয়ে দেখা যায়, যেন রাজকোষ। সারি সারি বালতিতে জমানো রয়েছে কয়েন। যা যক্ষের ধনের মতো আগলে রেখেছিলেন বিরজু। কয়েকটি বালতিতে জমানো সেই কয়েন আবার অনেক পুরনো। কোনো কোনোটাতে মরচেও লেগেছে। মনে করা হচ্ছে ষাটোর্ধ্ব ওই বৃদ্ধ কয়েক দশক ধরে ভিক্ষাবৃত্তি করতেন এবং টাকা জমিয়ে রাখতেন।

বিরজুর ঘরে থাকা ওই কয়েন গুণতে আট ঘণ্টা কেটে যায় পুলিশের। দেখা যায় মোট দেড় লাখ টাকার কয়েন সঞ্চিত রয়েছে। পুলিশ আরও তাজ্জব হয়ে যায় ওই ঝুপড়িতে পাওয়া ব্যাংকের কাগজপত্র দেখে।