‘লং নেক ওম্যান’

ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

‘লং নেক ওম্যান’

ডেস্ক রিপোর্ট ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০১৯

print
‘লং নেক ওম্যান’

থাইল্যান্ডের চিয়াং মে-তে অবস্থিত ‘লং নেক ওম্যান ভিলেজ’ অর্থাৎ লম্বা গলা মহিলাদের গ্রাম পর্যটকদের কাছে বহুল পরিচিত। লম্বা গলার মহিলাদের দেখতে এবং তাদের ছবি তুলতে প্রতিনিয়তই এই গ্রামে আসেন পর্যটকরা। কারণ এত লম্বা গলার মহিলাদের দেখা বিশ্বের আর কোথাও মেলে না।

গলা অদ্ভুত রকমের লম্বা হওয়ায় অনেকে আবার এই মহিলাদের ‘জিরাফ ওম্যান’ বা ‘ড্রাগন ওম্যান’ও বলে থাকেন। থাইল্যান্ডের ‘লং নেক ওম্যান ভিলেজ’-এ মূলত কায়েন সম্প্রদায় মানুষই থাকেন। জন্ম থেকেই অবশ্য এ সম্প্রদায়ের মহিলাদের ‘জিরাফ’-এর মতো লম্বা গলা হয় না।

বংশপরম্পরায় সম্প্রদায়ের ঐতিহ্য রক্ষা করতেই আসলে নিজেদের গলা লম্বা করে নেন এঁরা নিজেই। গলায় পেঁচানো রিং পরে। গ্রামে কোনো কায়েন কন্যা জন্ম হলে, তার ৫ বছর বয়স থেকেই গলায় সোনালি রঙের পেঁটানো রিং পরিয়ে দেওয়া হয়। প্রতি বছর রিংঙের প্যাঁচ বাড়তে থাকে। এভাবে একটার পর একটা রিং যোগ করা হয় ২১ বছর পর্যন্ত। আর যার গলা যত লম্বা, কায়েনদের কাছে তিনিই তত সুন্দরী।