দিরাইয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশনে সুস্থ নার্স

ঢাকা, শনিবার, ৬ জুন ২০২০ | ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

দিরাইয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশনে সুস্থ নার্স

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ১০:২০ অপরাহ্ণ, মে ০৬, ২০২০

print
দিরাইয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশনে সুস্থ নার্স

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলা হাসপাতালে করোনাভাইাসে আক্রান্ত দুই সহকর্মীর সঙ্গে আইসোলেশনে রয়েছেন এক সুস্থ নার্স। নিজেকে সুস্থ বলে দাবি করে আসলেও আক্রান্তদের সঙ্গে আইসোলেশনে থাকতে বাধ্য করা হয়েছে ওই নার্সকে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত এই নার্স করোনা আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা করছেন। বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ হলেও সুস্থ এই নার্সকে পৃথক স্থানে হোম কোয়ারেন্টিনের রাখার কোনো প্রদক্ষেপ নিচ্ছেন না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি দীর্ঘদিন এক সঙ্গে অবস্থান করায় এই নার্সও করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন।

জানা যায়, কিছুদিন ধরে দিরাই হাসাপাতালের ডরমেটরি থেকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন কর্তব্যরত তিন নার্স। সম্প্রতি তাদের দুইজনের শরীরে করোনা সনাক্ত হয়। আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে হাসপাতালের ডরমেটরিতেই আইসোলেশনে রাখা হয়েছে আক্রান্ত দুই নার্সকে। সহকর্মী অন্য নার্স সুস্থ থাকলেও তাকেও রাখা হয়েছে তাদের সঙ্গে। করোনার কোনো উপসর্গ না থাকায় ওই নার্স নিজেকে সুস্থ দাবি করে আসলেও পৃথক স্থানে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখার কোনো উদ্যোগ নেয়নি হাসপাতাল প্রশাসন। ফলে প্রতিনিয়ত ভয় আর আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন সুস্থ থাকা এই নার্স।

আক্রান্তদের সঙ্গে আইসোলেশনে থাকা সুস্থ নার্স মুঠোফোনে জানান, আমার শরীরে করোনার কোনো উপসর্গ নেই। আমি সুস্থ আছি অথচ আমাকে আক্রান্তদের সঙ্গে রাখা হয়েছে। প্রতিনিয়ত ভয় আর আতঙ্কের মধ্য দিয়ে সময় পার করতে হচ্ছে। পৃথক স্থানে সরিয়ে নিয়ে তাকে হোম কোয়ারেন্টির রাখার দাবি করেন তিনি।

এদিকে সুস্থ থাকা এই নার্স করোনা আক্রান্ত হতে পারে বলে দাবি দিরাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএচও মাহবুবুর রহমান।

তিনি বলেন, এই তিন নার্স বিগত দশ দিন এক সঙ্গে ছিলেন। তাদের দুইজনের শরীরে করোনা প্রজেটিভ। একসঙ্গে অনেক দিন থাকায় অন্যজনের শরীরেও করোনা প্রজেটিভ হতে পারে। তাই আমরা তার নমুনা সংগ্রহ করে রিপোর্টের জন্য পাঠিয়ে দিয়েছি।