কমলগঞ্জে খাসি সম্প্রদায়ের ‘সেং কুটস্নেম’ উৎসব অনুষ্ঠিত

ঢাকা, শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৪ আশ্বিন ১৪২৭

কমলগঞ্জে খাসি সম্প্রদায়ের ‘সেং কুটস্নেম’ উৎসব অনুষ্ঠিত

হৃদয় ইসলাম, কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) ৮:৪৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০১৯

print
কমলগঞ্জে খাসি সম্প্রদায়ের ‘সেং কুটস্নেম’ উৎসব অনুষ্ঠিত

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে খাসি সম্প্রদায়ের বর্ষ সমাপনী ও বর্ষবরণ উৎসব ‘সেং কুটস্নেম’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার উপজেলার মাগুরছড়া পুঞ্জিতে দিনব্যাপী খাসি সোস্যাল কাউন্সিলের উদ্যোগে ‘সেং কুটস্নেম’ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

মাগুরছড়া স্থানীয় ফুটবল মাঠে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা প্রশাসক বেগম নাজিয়া শিরিন। মাগুরছড়া খাসিয়া পুঞ্জির হেডম্যান ও বৃহত্তর সিলেট আদিবাসী ফোরামের সহ-সভাপতি জিডিসন প্রধান সুচিয়াংয়ের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রাশাসক মল্লিকা দে, সম্প্রিতী বাংলাদেশের আহ্বায়ক পিযুষ বন্ধোপাধ্যায়, বৃহত্তর সিলেট আদিবাসী ফোরামের চেয়ারপার্সন পিডিশন প্রধান সুচিয়াংসহ বিভিন্ন খাসিয়া পুঞ্জির হেডম্যানবৃন্দ।

উৎসবে খাসিদের নিত্যপণ্য ও খাদ্যসামগ্রীর অর্ধশতাধিক স্টল সাজিয়ে বসেন উদ্যেক্তারা। এসব স্টলে খাসিদের পোষাক, বিভিন্ন জাতের ফলমূল, জুমচাষের উপকরণ ও খাদ্যসামগ্রী বিক্রি করা হয়। উৎসবের বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে ছিলো খাসি নৃত্য, তৈলাক্ত বাঁশ বেয়ে উপরে উঠা, পানগুছি খেলা, গুলতি দিয়ে ঢিল ছোড়া, তীরধনুক ছোড়া ও মাছধরা।

উৎসব আয়োজক কমিটি জানায়, মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন পাহাড়ী অঞ্চলে প্রায় ৩০ হাজারের অধিক খাসি সম্প্রদায়ের মানুষের বসবাস। তাদের নিজস্ব বর্ণিল ঐতিহ্যকে প্রজম্ম থেকে প্রজন্মে ছড়িয়ে দিতেই তাদের এ আয়োজন।

মাগুরছড়া খাসিয়া পুঞ্জির হেডম্যান জিডিশন প্রধান সুচিয়াং ও লাউয়াছড়া খাসিয়া পুঞ্জির হেডম্যান ফিলাহ পত্মী বলেন, ‘ব্রিটিশ আমল থেকে ভারতের মেঘালয় রাজ্যে ২৩ নভেম্বর তারিখে খাসি বর্ষ বিদায় ‘খাসি সেং কুটস্নেম’ পালন করা হয়। পরদিন ২৪ নভেম্বর থেকে শুরু হবে খাসি বর্ষবরণ (স্ন্যাম থাইমি)। কমলগঞ্জের মাগুরছড়ায় ২০১২ সাল থেকে খাসিয়া পুঞ্জির হেডম্যানদের উদ্যোগে খাসি বর্ষবিদায় অনুষ্ঠান পালন করা হচ্ছে।’