১৩৬ শিক্ষার্থীর এক শিক্ষক

ঢাকা, রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

১৩৬ শিক্ষার্থীর এক শিক্ষক

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি ১:৩৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০১৯

print
১৩৬ শিক্ষার্থীর এক শিক্ষক

উপস্থিত থাকার কথা চার শিক্ষিকার। অথচ রয়েছেন একজন। তিনি একাই সামলাচ্ছেন পুরো বিদ্যালয়ের সব কার্যক্রম। শিশু থেকে পঞ্চম শ্রেণি, সব ক্লাসের দায়িত্বও তাকেই পালন করে যেতে হচ্ছে।

চা-শ্রমিক জনগোষ্ঠী অধ্যুষিত এলাকার তৃর্ণমূল মানুষের মাঝে শিক্ষা বিকাশের ক্ষেত্রে চা-বাগানের বিদ্যালয়গুলো সরকারিকরণ করা হয়। কিন্তু প্রায়ই এসব স্কুলে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের অনুপস্থিতি দেখা যায়। ফলে শিক্ষা কার্যক্রম থেকে বঞ্চিত হচ্ছে স্থানীয় শিক্ষার্থীরা। বাড়ছে অনিয়মিত পাঠদানের চর্চা।

শ্রীমঙ্গল উপজেলার কাকিয়াছড়া চা-বাগান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা গেছে, উপস্থিত রয়েছেন মাত্র একজন শিক্ষিকা। বাকি তিনজন নানা কারণে অনুপস্থিত।

বিদ্যালয়টির পশ্চিম পাশে নতুন ভবন নির্মাণের কাজ চলছে। তিন কক্ষবিশিষ্ট এ বিদ্যালয়ে উপস্থিত রয়েছে ২০ জন শিক্ষার্থী। এদের কেউ কেউ গল্প করছে, কেউ কেউ আবার এদিক-ওদিক ছোটাছুটি করছে। শিক্ষক নেই, তাই পড়াশোনাতে আগ্রহও নেই তাদের।

বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সংখ্যা- শিশু শ্রেণিতে ১৮ জন, প্রথম শ্রেণিতে ৩৪ জন, দ্বিতীয় শ্রেণিতে ৩২ জন, তৃতীয় শ্রেণিতে ১৭ জন, চতুর্থ শ্রেণিতে ২৩ জন এবং পঞ্চম শ্রেণিতে ১২ জন। অর্থাৎ মোট শিক্ষার্থী ১৩৬ জন।