শায়েস্তাগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৩ মামলার আসামি নিহত

ঢাকা, রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

শায়েস্তাগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৩ মামলার আসামি নিহত

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৫, ২০১৯

print
শায়েস্তাগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৩ মামলার আসামি নিহত

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ কুদরত আলী (৪০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ছয় পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তাদেরকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার ভোররাতে উপজেলার সুরাবই গ্রামের একটি বাঁশ বাগানে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, নিহত কুদরত আন্তঃবিভাগীয় ডাকাত সর্দার। তার বিরুদ্ধে হবিগঞ্জের বিভিন্ন থানায় ১৩টি মামলা রয়েছে।

নিহত কুদরত আলী হবিগঞ্জ সদর উপজেলার নিজামপুর ইউনিয়নের দরিয়াপুর গ্রামের ওমর আলীর ছেলে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলাম জানান, ভোররাতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পার্শ্ববর্তী সুরাবই গ্রামের ফজলু মিয়ার বাঁশ বাগানে একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নেয়। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে শায়েস্তাগঞ্জ থানা ও ডিবি পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা অতর্কিত হামলা চালায়। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়লে ডাকাতরা ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অভিযানকালে ডাকাত দলের হামলায় ডিবির এসআই আবুল কালাম আজাদ, এসআই মোজাম্মেল হক, কনস্টেবল জয়নাল আবেদিন, নূরুল ইসলাম, রনি কর ও রিপন আহত হন।

নিহত ডাকাত সর্দার কুদরত সিলেট, মৌলভীবাজার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, নরসিংদী, কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ডাকাতি করতো। তার বিরুদ্ধে মোট ১৩টি ডাকাতির মামলা রয়েছে। তিনি আন্তঃবিভাগীয় ডাকাত সর্দার।