সিভিল সার্জনের অপসারণ দাবি

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬

সুনামগঞ্জ হাসপাতালে অনিয়ম

সিভিল সার্জনের অপসারণ দাবি

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ৮:৪২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৬, ২০১৯

print
সিভিল সার্জনের অপসারণ দাবি

সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতলের নতুর ভবন চালু ও হাসপাতালে অনিয়ম দুর্নীতি, সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাসসহ কর্মকর্তা-কমচারীদের সিন্ডিকেটের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় শহরের আলফাত উদ্দিন স্কয়ারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সুনামগঞ্জ স্বাস্থ্য অধিকার সংরক্ষণ আন্দোলন আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জেলার প্রধান চিকিৎসা কেন্দ্রেটি অনিয়ম দুর্নীতির কারণে দিন দিন অচল হয়ে পড়ছে। মানুষ প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে সেবা নিতে আসলেও অনিয়ম দুর্নীতির আর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সিন্ডিকেটে রোগী ও রোগীর স্বজনরা হয়রানির শিকার হন। প্যারাসিটামল, এন্টাসিডসহ দুই একটা সাধারণ ওষুধ ছাড়া কিছুই পাওয়া যায় না হাসপাতাল থেকে। দুই একটা সাধারণ টেস্ট ছাড়া সব টেস্ট বাইরে থেকে করাতে হয়ে রোগীদের।

অধিকাংশ ডাক্তার নিয়মিত হাসপাতালে আসেন না। আসলেও খেয়াল খুশিমত দায়িত্ব পালন করেন তারা। হাসপাতালের কয়েকজন তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মকর্তা প্রকাশ্যে ক্লিনিক আর ডায়গনস্টিক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। অনিয়ম দুর্নীতির মাধ্যমে এসব কর্মকর্তা সম্পদের পাহাড় গড়েছেন।

বক্তরা অভিযোগ করে বলেন, রহস্যজনক কারণে গত দুই অর্থবছর ধরে হাসপাতালের বিভিন্ন সেবা খাতে টেন্ডার হচ্ছে না। সম্প্রতি আউট সোর্সিংয়ে লোক নিয়োগে টেন্ডারে দুর্নীতির মাধ্যমে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। প্রকাশ্যে লাখ লাখ টাকা গ্রহণের মাধ্যমে আউট সোর্সিংয়ে লোক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সব অনিয়ম দুর্নীতির মূলে রয়েছে সিভিল সার্জন ডাক্তার আশুতোষ দাস। তিনি উপ-পরিচালক পদে পদন্নতি পেলেও অধিক মুনাফা লাভে সিভিল সার্জন হিসেই কর্মরত রয়েছেন।

সাংবাদিক শহীদ নুর আহমদের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন রহুল তুহীন, জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক এনামুজ্জামান চৌধুরী, সেবকের সাধারণ সম্পাদক মোজাহিদুল ইসলাম মঞ্জু, শিক্ষার্থী বকুল দাস, ইকবাল হোসেন, পাশা প্রমুখ। এ সসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরী, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদ সুজন, মানবাধিকার কর্মী মোশাহিদুল তালুকদার মুহিম প্রমুখ।