কথা রাখেনি কেউ

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৫ কার্তিক ১৪২৬

কথা রাখেনি কেউ

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি ৪:৪৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৭, ২০১৯

print
কথা রাখেনি কেউ

‘দেশ স্বাধীনের আগে থাকিই এই হাখম (সাঁকো) দিয়া চাইর (চার) গাঁওর (গ্রাম) লোকজন চলাফেরা করে আসছেন। স্বাধীনের পর থাকিয়া এইখানে একটা পুলর (সেতুর) লাগি সকল এমপি, ইউনিয়ন চেয়ারম্যানরে লিখিত দাবি জানাইছি। সবেউ (সকলে) আমরারে আশ্বাস দিছইন পুল (সেতু) করিয়া দিবা।

বিশেষ করে ভোটের সময় আইলে (এমপি-চেয়ারম্যান) পুল (সেতু) করিয়া দেওয়ার আশ্বাস বেশি দিছইন। কিন্তু পরে তারা ভুলি যাইন, আর কোনো খোঁজ নেইননা (নেননি)।’ সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় ক্ষোভের সঙ্গে কথাগুলো বলেন কুলাউড়া উপজেলার আবুতালিপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. বশির মিয়া।

ক্ষোভ শুধু বশির মিয়ার নয়, কুলাউড়া উপজেলার জয়চণ্ডি ইউনিয়নের চারটি গ্রামের ১০ সহস্রাধিক মানুষের মাঝে বিরাজ করছে। কারণ মিঠুপুর-আবুতালিপুর সংযোগ সড়কের গোগালিছড়া নদীতে দীর্ঘদিন থেকে বাঁশ-বেত দিয়ে সাঁকো তৈরি করে স্থানীয় লোকজন চলাচল করছে। প্রায় ৬০ ফুট দৈর্ঘ্যরে এ সাঁকোটির বর্তমান অবস্থা একেবারে নাজেহাল।

স্থানীয় বাসিন্দা ইমরান আহমদ, আতাউর রহমান দুদু, নওশা মিয়া, আরব মিয়া, আব্দুন নূর, উস্তার মিয়া, আনার খাঁ জানান, আবুতালিপুর, রামপাশা, মিঠুপুর ও বেগমানপুর গ্রামের ১০ হাজারেরও বেশি মানুষকে গোগালিছড়া নদীর উপর নির্মিত ওই সাঁকো দিয়ে চলাচল করতে হয়। এলাকার মানুষ নদীর ওপর একটি সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছে স্বাধীনতার পর থেকে। কিন্তু স্বাধীনতার ৪৭ বছরেও তাদের সে দাবি পূরণ হয়নি।

জয়চণ্ডি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কমর উদ্দিন আহমদ কমরু জানান, মাসিক সমন্বয় সভায় বিষয়টি তুলে ধরেছি। কিন্তু কোনো আশ্বাস পাচ্ছি না।