শতবর্ষী বৃদ্ধার জীবন বাঁচে ভিক্ষা করে

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১ আশ্বিন ১৪২৬

শতবর্ষী বৃদ্ধার জীবন বাঁচে ভিক্ষা করে

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ৯:৪১ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০১৯

print
শতবর্ষী বৃদ্ধার জীবন বাঁচে ভিক্ষা করে

একশত তের বছরের বৃদ্ধা মরিয়ম বিবি। স্বামী মারা গেছেন অনেক আগেই। নেই কোন সন্তান, নিজের বাড়ি, জমি কিছুই। পরকোলে আশ্রয় নিয়ে বসবাস করেছেন তিনি। হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ উপজেলার জসখাই গ্রামের আয়েশা খাতুন নামের এক নারীর সাথে বসবাস কওে আসছেন।

আয়েশা তিনযুগ যাবত হবিগঞ্জ শহরের বিভিন্নস্থানে বাসা ভাড়া নিয়ে ঝিয়ের কাজ করে অতিকষ্টে বসবাস করে আসছেন। বর্তমানে তিনি হবিগঞ্জ পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের অনন্তপুর এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছেন।

ঠিকভাবে কথাও বলতে পারেন না মরিয়ম বিবি। তবুও আবলিয়ে-থাবলিয়ে তিনি বলেন- ‘আমার স্বামী, সন্তান, বাড়ি-ঘর কিছু নাই। আমার বাবা বাড়ি শহরের শায়েস্তানগর, আমার কেউ নাই। আমার কোন সন্তানদি নাই। আয়েশা খাতুন নামের এক মহিলার নিকট থাকি। টাকা-পয়সা অভাবে খেতে পরতে পারি না,। রোগ হলে ঔষধ কিনে খেতে পারি না, অনেক সময় উপাস থাকতে হয়।’ শরীরে অসুস্থ থেকেও ভিক্ষায় বের হতে হয়। মাস শেষ হতে না হতেই ঘর বাড়া দিতে হয়। না হলে কোথায় তাকব।’

এ ব্যাপারে আশ্রীতা আয়েশা বলেন- ‘আমি প্রায় ৩০ বছরের উপরে মরিয়ম বিবিকে লালন-পালন করছি। ম্যাচে বাসা বাড়িতে আমি ঝিয়ের কাজ করে পালছি। মরিয়ম বিবি ভিক্ষা করে যে টাকা-পয়সা পায় তা দিয়ে পেটে ভাতই হয় না অনেক সময়।