ভারতীয় চা পাতায় সয়লাব

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১ আশ্বিন ১৪২৬

ভারতীয় চা পাতায় সয়লাব

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি ৫:৪৯ অপরাহ্ণ, মে ২৮, ২০১৯

print
ভারতীয় চা পাতায় সয়লাব

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় নিম্নমানের চোরাই চা পাতা আনার ফলে দেশে উৎপাদিত চায়ের দর খুবই নিম্নগামী। মৌসুমের শুরুতে ভারতে ত্রিপুরা প্রদেশ থেকে নিম্নমানের চোরাই চা পাতা এসে দেশের বাজার সয়লাব হয়ে গেছে।

এখন মাধবপুরে পাঁচটি চা বাগানে উৎপাদিত বিপুল পরিমাণ চায়ের দর কম হওয়ায় বিক্রি করা যাচ্ছে না। এ নিয়ে চা বাগান কর্তৃপক্ষ চোরাইপথে ভারত থেকে আসা চা পাতা আসাকে দায়ী করছেন।

নোয়াপাড়া চা বাগানের সহকারী ব্যবস্থাপক সোহাগ মাহমুদ জানান, চিনি শিল্পের মতো চা শিল্পও ধ্বংস হতে যাচ্ছে। এ বছর ভারত থেকে আগাম শত শত মণ চা পাতা দেশের বাজারে চোরাই পথে প্রবেশ করেছে। এখন দেশে উৎপাদিত চায়ের দাম কমে গেছে। এক কেজি চা পাতার উৎপাদন খরচ পড়ে কমপক্ষে ১৭০ টাকা কিন্তু ভারতীয় নিম্নমানের চা প্রতি কেজি পাওয়া যায় মাত্র ১৫০ টাকা। শক্তিশালী একটি চোরাকারবারি চক্র এখন ভারত থেকে চোরাই পথে চা পাতা আমদানির ফলে দেশের চায়ের এমন দুরবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

তেলিয়াপাড়া চা বাগানের ব্যবস্থাপক এমদাদুর রহমান মিঠু জানান, ভারত থেকে নিম্নমানের পচা চা পাতা আসায় এখন পর্যন্ত এক কেজিও চা পাতাও বিক্রি করতে পারিনি। সাতছড়ি, আমু, নালুয়া সীমান্ত দিয়ে শত শত মণ চোরাই চা পাতা দেশে ঢুকে পড়েছে।