ডাক্তার বিশ্রামে, রোগী দেখেন ইন্টার্নি

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১ আশ্বিন ১৪২৬

ডাক্তার বিশ্রামে, রোগী দেখেন ইন্টার্নি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ৪:৫১ অপরাহ্ণ, মে ২৭, ২০১৯

print
ডাক্তার বিশ্রামে, রোগী দেখেন ইন্টার্নি

হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে হানা দিয়েছে বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ সময় হাসপাতালের বিভিন্ন অব্যবস্থাপনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন দুদক কর্মকর্তারা। একই সঙ্গে সাত দিনের মধ্যে সব সমস্যা সমাধান করার নির্দেশ প্রদান করা হয়। গতকাল রোববার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করেন বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) হবিগঞ্জের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ এরশাদ। এ সময় তার সঙ্গে দুদকের আরও দুইজন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গতকাল সকালে সিভিল পোশাকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে অবস্থান নেন বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) হবিগঞ্জ কার্যালয়ের তিনজনের একটি দল। এ সময় দুদক কর্মকর্তারা হাসপাতালে কোনো ডাক্তার পাননি। তারা দেখেন সেখানে রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছেন ইন্টার্নি চিকিৎসকরা। সেখানে ঘণ্টা খানেক অবস্থান করার পর কোনো ডাক্তারের দেখা না পেয়ে ফিরে যান দুদক কর্মকর্তারা। কিছুক্ষণ পর নিজেদের পোশাক পরে আবারও তারা (দুদক কর্মকর্তা) সদর হাসপাতালে অভিযান চালান। এ সময়ও ইমার্জেন্সি বিভাগে কোনো ডাক্তার ছিলেন না।

ইমার্জেন্সি বিভাগে দায়িত্বপ্রাপ্তরা জানান, ডাক্তার তার নিজ রুমে অবস্থান করছেন। পরে সেখানে গিয়ে ডাক্তার মিঠু রায়কে পান দুদক কর্মকর্তারা। এ ব্যাপারে ডাক্তার মিঠুন রায় দুদক কর্মকর্তাদের জানান, তিনি সেখানে কয়েকজন রোগীর ছাড়পত্র লিখছিলেন।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) হবিগঞ্জ কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ এরশাদ বলেন, সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আমরা হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ছিলাম। সেখানে বিভিন্ন অনিময় পাওয়া গেছে। দ্রুত সব সমস্যা সমাধানের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আমরা কিছুদিন পর আবারও হাসপাতাল পরিদর্শনে আসব।