সিরিজ জয়ের লক্ষ্যেই দুপুরে মাঠে নামবে টাইগাররা

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ | ২৯ কার্তিক ১৪২৫

সিরিজ জয়ের লক্ষ্যেই দুপুরে মাঠে নামবে টাইগাররা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ১০:১৮ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০১৮

print
সিরিজ জয়ের লক্ষ্যেই দুপুরে মাঠে নামবে টাইগাররা

জয় দিয়ে সিরিজ শুরুর সর্ব সফলভাবেই করতে পেয়েছে বাংলাদেশ দল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এবার সিরিজ জয়ের পালা। বুধবার দুপুরে সিরিজ জয়ের লক্ষ্যে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল। তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচটি চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হবে দুপুর আড়াইটায়। ম্যাচ প্রিভিউয়ে জেনে নেওয়া যাক বিস্তারিত-

ম্যাচ : বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে দ্বিতীয় ওয়ানডে।

কবে : ২৪ অক্টোবর, ২০১৮।

কখন : দুপুর আড়াইটায়।

কোথায় : জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম।

খেলা দেখাবে যে চ্যানেল : বাংলাদেশ টেলিভিশন, গাজী টিভি, স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ওয়ান।

মুখোমুখি লড়াই : দুই দল এখন পর্যন্ত ৭০ ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়েছে। বাংলাদেশ জিতেছে ৪২ ম্যাচে। ২৮টিতে জয় জিম্বাবুয়ের।

দলের খবর :

বাংলাদেশ : সব ঠিক থাকলে উইনিং কম্বিনেশন ধরে রাখার পক্ষে বাংলাদেশ। ফজলে রাব্বী প্রথম ম্যাচে ব্যর্থ হলেও আরেকটি সুযোগ তিনি পাচ্ছেন। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা আগের দিন তেমনটাই বলেছেন। তবে শিশির এ ম্যাচে প্রভাব ফেলতে পারে। শেষ মুহূর্তে বাংলাদেশের একাদশ ভাবনাতেও যা প্রভাব রাখতে পারে।

জিম্বাবুয়ে : প্রথম ম্যাচের একাদশে সুযোগ পাননি সলোমন মিরে। এ ম্যাচেও তার বাইরে থাকার সম্ভাবনাই বেশি। মাসাকাদজার সঙ্গে ওপেন করবেন কেপাস জুয়াও। অফ ফর্মে থাকা এল্টন চিগুম্বুরাকেও হয়তো দর্শক হয়ে থাকতে হবে।

সম্ভাব্য একাদশ :

বাংলাদেশ : লিটন দাস, ইমরুল কায়েস, ফজলে রাব্বী, মুশফিকুর রহীম (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ মিথুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মাশরাফি বিন মুর্তজা, নাজমুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে : হ্যামিল্টন মাসাকাদজা, কেপাস জুয়াও, ক্রেইগ আরভিন, ব্রেন্ডন টেইলর, সিকান্দার রাজা, শেন উইলিয়ামস, পিটার মুর/তারিসাই মুসাকান্দা, ডোনাল্ড তিরিপানো, ব্রেন্ডন মাভুতা, কাইল জার্ভিস, তেন্দাই চাটারা।

উইকেট এবং কন্ডিশন :

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের উইকেট বরাবরই ব্যাটিং বান্ধব। দিবা-রাত্রির সাত ম্যাচের মধ্যে পরে ব্যাট করা দল জিতেছে চারটিতে। এদিন চট্টগ্রামের আবহাওয়া শুষ্ক হতে পারে। তবে শিশির একটা ফ্যাক্টর হবে।