এবার চ্যালেঞ্জ কাতারে

ঢাকা, শনিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২০ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

এবার চ্যালেঞ্জ কাতারে

ক্রীড়া প্রতিবেদক ১২:৩৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০২০

print
এবার চ্যালেঞ্জ কাতারে

নেপালের বিপক্ষে দুইটি আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচের সাফল্যের পর জামাল ভুঁইয়াদের নতুন মিশন এবার কাতারের বিপক্ষে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের ফিরতি ম্যাচে অংশ নেয়া। এ লক্ষ্যে গতকাল ২৭ সদস্যের একটি দলও ঘোষনা করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার কাতারের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ছেন জামাল ভুঁইয়ারা। আগামী ৪ ডিসেম্বর দোহায় স্বাগতিক কাতারের বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলবে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

এই ম্যাচের মধ্য দিয়ে আবার মাঠে গড়াবে স্থগিত পর্ব। এতে বাদ দেয়া হয়েছে মিডফিল্ডার নাজমুল ইসলাম রাসেল, আরিফুর রহমান, ফরোয়ার্ড ফয়সাল আহমেদ ফাহিম ও মো. আবদুল্লাহ। কাতার সফরের জন্য মনোনীত ২৭ ফুটবলার এবং ১০জন কোচিং স্টাফ, অফিসিয়ালসহ মোট ৩৭ জনের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়েছে। সবার করোনার পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার পরই দল ঘোষণা করা হয়।

ঘরের মাঠে কাতারের সঙ্গে ২-০ হেরেছিল বাংলাদেশ। এবার ফিরতি ম্যাচে জয়ের প্রত্যাশা করছেন তারা। আজ সকাল দশটায় বিমানে উঠার আগে তেমনি ইঙ্গিত দিয়েছেন দলের অভিজ্ঞ গোল রক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা। তার বিশ্বাস ভারত যদি কাতারের সঙ্গে ড্র করতে পারে, তারাও পারবেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের অ্যাওয়ে ম্যাচ। এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন ওরা। ওদের হোমে খেলা হবে। ওরা আমাদের ওপর প্রাধান্য বিস্তারের চেষ্টা করবে। আমাদের একটাই লক্ষ্য ভালোভাবে লড়াই করা। আমাদের সেই চ্যালেঞ্জ নিতে হবে। আমাদের দুই সপ্তাহ সময় আছে কাজ করার। আমরা নেপালের বিপক্ষে দুটি ম্যাচ খেললাম। অনেকদিন পর। আমাদের যে সমস্যাগুলো আছে, সেটা কাটানোর জন্য কোচ কাজ করবে। মানসিকভাবে তৈরি হচ্ছি কাতারের সঙ্গে যাতে ভালো ম্যাচ খেলতে পারি।’

অন লাইন সংবাদ সম্মেলনে গোলকিপার রানা আরও বলেছেন, ‘অবশ্যই আমরা রোমাঞ্চিত। কাতার ২০২২ বিশ্বকাপের স্বাগতিক। যে স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের খেলা হবে, সেখানে খেলবো। ভারত তাদের মাঠে গিয়ে ড্র করেছে তাদের সঙ্গে। আমাদের খেলোয়াড়দের মধ্যে সেই কমিটমেন্ট আছে। যদি ভারত তাদের সঙ্গে ড্র করতে পারে তাহলে আমরা কেন পারবো না?আমরা সেরাট দেবো। ভালো খেলার চেষ্টা করবো, ভালো ফল করার জন্য।’

এ জন্য রানা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত, ‘আমরা যারা গোলকিপার হিসেবে খেলি, তাদের বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ নিতে হয়। ডিফেন্ডারদের জন্যও বড় চ্যালেঞ্জ হবে। কাতার অনেক ভালো দল। সেরকম ম্যাচের প্রস্তুতি আমাদের থাকবে। ওরা ডমিনেট করবে। আমাদের প্রস্তুতি সেভাবে নিতে হবে। লড়াই করার জন্য।’

অনেকদিন পর নেপালের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। ম্যাচ ?দুটির মূল্যায়ন করতে গিয়ে রানা বলেছেন, ‘নেপাল ম্যাচের আগে তিন সপ্তাহ কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। নিজেদের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করেছি। নেপালও তাই। আমাদের মধ্যে অনেক জড়তা ছিল। অনেক দিন পর খেলতে নেমেছিলাম তাই। এখন যেই সব জায়গা দুর্বলতা আছে সেটা নিযে কোচ আগামীতে কাজ করবে। দুই সপ্তাহ আছে। দুটি প্রস্তুতি ম্যাচও আছে।’