আইপিএল শুরু আজ

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০ | ৭ কার্তিক ১৪২৭

আইপিএল শুরু আজ

ক্রীড়া ডেস্ক ১:২৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০

print
আইপিএল শুরু আজ

করোনা পরিস্থিতিতে আজ থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে মাঠে গড়াচ্ছে আইপিএল। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের জমজমাট এ টুর্নামেন্টের খেলা শুরু হলেও অংশগ্রহণকারী দলগুলো নিজেদের স্কোয়াড নিয়ে মাসখানেক আগেই হাজির মরুরাষ্ট্রে। সেখানে কোয়ারেন্টিন ও অন্যান্য সুরক্ষা বলয় তৈরি করেই চলছে তাদের অনুশীলন।

কিন্তু ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটারদের অবশ্য আগেভাগে আমিরাতে যাওয়ার সুযোগ হয়নি। কারণ আর কিছুই নয়, সদ্যই তিন টি-টোয়েন্টি আর তিন ওয়ানডের সিরিজ শেষ করেছে এই দুই দল। শেষ ওয়ানডের মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়ার ইংল্যান্ড সফর শেষ হয়েছে গত বুধবার। সে সিরিজ শেষ করেই দুই দেশের একাধিক ক্রিকেটার পাড়ি জমিয়েছেন আমিরাতে, আইপিএল খেলার উদ্দেশে।

নেমেই আইপিএল খেলার প্রস্তুতি শুরু করে দেবেন কী, উল্টো করোনাভাইরাসের কারণে ছয় দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা ছিল স্মিথ-আর্চারদের। ফলে চিন্তায় পড়ে গিয়েছিল এই দুই দেশের খেলোয়াড়দের ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। কারণ, মোটামুটি সব ফ্র্যাঞ্চাইজিতেই এই দুই দেশের একাধিক খেলোয়াড় আছেন। যেখানে আইপিএল শুরুই হচ্ছে আগামীকাল থেকে, সেখানে ছয় দিনের কোয়ারেন্টিনে এসব তারকা বন্দী থাকলে তাদের ছাড়াই খেলতে নামতে হতো প্রত্যেকটা দলকে। বিসিসিআইয়ের বিশেষ বিবেচনায় অমনটা হচ্ছে না আর।

রাজস্থান রয়্যালসের কথাই ধরুন। জস বাটলার, স্টিভেন স্মিথ, বেন স্টোকস, জফরা আর্চার - দলের মূল চার বিদেশি খেলোয়াড়ই এই দুই দেশের। আছেন টম কারেন ও অ্যান্ড্রু টাই। ওদিকে চেন্নাই সুপার কিংসে আছেন জশ হ্যাজলউড ও স্যাম কুরান। মার্কাস স্টয়নিস, অ্যালেক্স ক্যারি ও ড্যানিয়েল সিমসকে নিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল আবার কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের। কলকাতা নাইট রাইডার্সে আছেন এউইন মরগান, প্যাট কামিন্স ও টম ব্যান্টন। ক্রিস লিন, জেমস প্যাটিনসন আর নাথান কোল্টার-নাইল আছেন মুম্বাই ইন্ডিয়ানসে। বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর আবার চেয়ে আছে মঈন আলী, অ্যাডাম জাম্পা ও অ্যারন ফিঞ্চের দিকে। জনি বেয়ারস্টো ছাড়াও সানরাইজার্স হায়দরাবাদে আছেন ডেভিড ওয়ার্নার ও মিচেল মার্শ।

আগের সমঝোতা অনুযায়ী ইংল্যান্ড থেকে এসে সবাইকে যদি ছয় দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হতো, বড় ঝামেলায় পড়ত প্রত্যেকটা ফ্র্যাঞ্চাইজি। তাদের পাওয়া যেত না প্রথম ম্যাচে। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাতে আরব আমিরাতে পৌঁছানো এই ২১ ক্রিকেটারকে কোয়ারেন্টিনে কাটাতে হবে মাত্র ৩৬ ঘণ্টা। সৌরভ গাঙ্গুলীর নেতৃত্বে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) আরব আমিরাতের স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টির সমাধান করেছেন এভাবে।

এর আগে অস্ট্রেলিয়ার এক বড় তারকা বিসিসিআইয়ের কাছে কোয়ারেন্টিনের সময়টা ছয় দিনের পরিবর্তে তিন দিনে নামিয়ে আনার ব্যবস্থা করার জন্য অনুরোধ করেছিলেন। তিনি চিঠিটা লিখেছিলেন অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের সব ক্রিকেটারের পক্ষ থেকেই। চিঠিতে তিনি যুক্তি দিয়েছিলেন, যেহেতু ইংল্যান্ডে তারা সিরিজ খেলছিলেন, তাই জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যেই ছিলেন তারা। নিয়মিত স্বাস্থ্যবিধিও মেনে চলেছে। কোভিড পরীক্ষাও করা হয়েছে নিয়মিত বিরতি দিয়েই। এসব বিবেচনা করেই ৬ দিনের কোয়ারেন্টিনকে ৩ দিনে নামিয়ে নিয়ে আসার অনুরোধ করেছেন তিনি। সেটাই হচ্ছে শেষমেশ। অর্থাৎ শুরু থেকেই আইপিএলে দেখা যাবে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডের জৌলুস।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিসিআইয়ের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা, ‘বিমানে ওঠার আগেই তারা একটা র‌্যাপিড টেস্ট করিয়েছেন, এখানে বিমান থেকে নেমেই আরেকটি টেস্ট করাবেন। আর সব পরীক্ষা হবে আগের মতো। এ প্রক্রিয়া অনুসরণ করা অনেক দরকার, কারণ তারা একটি জীবাণু-সুরক্ষিত পরিবেশ থেকে প্রবেশ করতে যাচ্ছেন আরেকটি জীবাণু-সুরক্ষিত পরিবেশে। বিসিসিআই কোয়ারেন্টিন ৩৬ ঘণ্টায় নামিয়ে এনে খুব ভালো একটা কাজ করেছে। অর্থাৎ চেন্নাই সুপার কিংস (হ্যাজলউড ও স্যাম কুরান), রাজস্থান রয়্যালস (স্মিথ, বাটলার, আর্চার, টাই, টম কারেন) তাদের বিদেশি তারকাদের পাচ্ছে প্রথম ম্যাচ থেকেই। একই কথা প্রযোজ্য গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও অ্যালেক্স ক্যারির দিল্লি ক্যাপিটালসের জন্যও।’