বার্সাকে নিয়ে ছেলেখেলা করে সেমিতে বায়ার্ন

ঢাকা, বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৮ আশ্বিন ১৪২৭

বার্সাকে নিয়ে ছেলেখেলা করে সেমিতে বায়ার্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০২০

print
বার্সাকে নিয়ে ছেলেখেলা করে সেমিতে বায়ার্ন

সুপারস্টার লিওনেল মেসির বার্সাকে নিয়ে ছেলেখেলা করে সেমিতে পৌঁছালো বায়ার্ন মিউনিখ। তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে মেসিদের জালে গুনে গুনে আটবার বল জড়ালো বায়ার্ন। এর মধ্যে নিজেদের জালে নিজেরাই একবার জড়িয়েছে। বার্সার এমন পরজয়ে দলের অভ্যন্তরে যে কি চলছে, সেটা চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিলো তারা। অগোছালো মেসিদের নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলাই খেললেন মুলার, পেরিসিক, লেওয়ানডস্কি, গিনাব্রি, কিমিচরা।

পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে অনুষ্ঠিত ১০ গোলের ম্যাচে ৯টি’ই দিলো বায়ার্ন। বার্সার হয়ে একটি মাত্র গোল করতে পেরেছেন লুইস সুয়ারেজ। শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনাকে ৮-২ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে উঠলো বায়ার্ন মিউনিখ। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে নকআউট পর্বে এই প্রথম এতবড় একটি জয় পেলো বায়ার্ন। বার্সার ইতিহাসেও এত বড় পরাজয় নেই।

গোল করতে করতে এক সময় যেন ক্লান্ত হয়ে পড়েছিল বায়ার্ন। ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজদের মুখখানা চোখ ফেটে কান্না বেরিয়ে আসার অবস্থা। আর কোচ সিসে সেতিয়েন তো টেন্টের ওপর দুই হাত ছড়িয়ে দিয়ে উদাস দৃষ্টিতে আকাশের দিকে তাকিয়েছিলেন।

ম্যাচে প্রথমার্ধেই ৫টি গোল হয়েছে। পরের অর্ধে হয়েছে ৫টি। মোট ১০টি। এর মধ্যে ৯টিই দিলো বায়ার্ন মিউনিখ। কিন্তু ম্যাচের স্কোরলাইন ৮-২। একটি গোল বায়ার্ন নিজেদের জালে যদি না জড়াতো তাহলে বার্সার ভাগে গোলের পাল্লা থাকতো মাত্র একটি। যেটি এসেছিল লুইস সুয়ারেজের পা থেকে।

ম্যাচটিকে সবাই ফাইনালের আগে আরেক ফাইনাল হিসেবে ধরে নিয়েছিল। বার্সেলোনা এবং বায়ার্ন মিউনিখের খেলা বলে কথা। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই তো হবেই হবে!

তবে হলো উল্টো। মাঠের খেলায় বার্সাকে খুঁজে পাওয়াই কঠিন হলো। মেসিরা যেন মাঠে নেমেছিল শুধু বায়ার্নের আক্রমণ ঠেকানোর জন্যই। নিশ্চিত আরো কয়েকটি গোলের সুযোগ মিস না হলে স্কোরলাইন দুই অঙ্কে পৌঁছাতো।