বাংলাদেশকে স্বাগত জানাবে নিউজিল্যান্ড

ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১০ আশ্বিন ১৪২৭

বাংলাদেশকে স্বাগত জানাবে নিউজিল্যান্ড

ক্রীড়া প্রতিবেদক ১২:৩১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১২, ২০২০

print
বাংলাদেশকে স্বাগত জানাবে নিউজিল্যান্ড

ভিনদেশে গিয়ে ক্রিকেট খেলার দরজাটা অবশেষে মুক্ত হচ্ছে। শ্রীলঙ্কা সফরের খবরের পর এবার টাইগারদের নিউজিল্যান্ড সফরের অনুমোদনেও সুবাতাস বইছে। নিউজিল্যান্ডে করোনা প্রকোপ শ্রীলঙ্কার চেয়েও ভালো। তাই তারা ইংল্যান্ডের মতো ভিন্ন ভিন্ন দ্বিপাক্ষিক সিরিজে অংশ নিতে প্রতিপক্ষ দেশগুলোকে আতিথেয়তা দিতে চাচ্ছে। বাংলাদেশকেও তারা স্বাগত জানাবে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড।

বর্তমানে বায়ো সিকিউর বাবল তৈরির বিষয়ে নিউজিল্যান্ড সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে যাচ্ছে ক্রিকেট বোর্ড। প্রতিটি সফরকারী দল নিউজিল্যান্ডে খেলতে গেলে থাকতে হবে ১৪ দিনের কোয়ারান্টিনে, এমনটা ধরেই এগুচ্ছে এনজেসির পরিকল্পনা। এক্ষেত্রে তারা অনুসরণ করতে চাইছে ইংল্যান্ডে বায়ো সিকিউর মডেল।

বায়ো সিকিউর মডেল ব্যবহারের মাধ্যমে এরই মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন টেস্ট ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ওয়ানডের সিরিজ খেলে ফেলেছে ইংল্যান্ড। এখন চলছে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। সফলভাবেই তারা এসব সিরিজ আয়োজন করছে বিধায় নিউজিল্যান্ডও এই মডেল ব্যবহার করার পক্ষে।

এনজেসির প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট নিশ্চিত করেছে, বাংলাদেশসহ অন্তত চারটি দেশ শিগগিরই যাবে নিউজিল্যান্ড সফরে। অকল্যান্ডে সংবাদ মাধ্যমে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের পরিস্থিতির অভাবনীয় উন্নতি হচ্ছে। ফোনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড সফরের কথা নিশ্চিত করেছে। পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশও আসবে। সব মিলে ৩৭ দিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট চলবে।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘নারীদল সেপ্টেম্বরে অস্ট্রেলিয়া সফরে যাবে। পরে আবার অস্ট্রেলিয়া নারী দল আগামী ফেব্রুয়ারিতে পাঁচ ওয়ানডে ও তিন টি-টোয়েন্টি খেলতে আসবে। সরকারি সংস্থাগুলোর সঙ্গে এসব সফরের ব্যাপারে কাজ করে যাব আমরা। তাদের সমর্থন এখন খুব কাজে দেবে।’

নিউজিল্যান্ডের বর্তমান ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম মোতাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তান যাবে টেস্ট, টি-টোয়েন্টি খেলতে। বাংলাদেশ খেলবে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি আর অস্ট্রেলিয়ার সফরে থাকবে শুধু টি-টোয়েন্টি সিরিজ। যদিও কোনো সিরিজের সূচিই এখনও পর্যন্ত চূড়ান্ত করেনি এনজেসি।