ডাক্তার-নার্সে কৃতজ্ঞ রিয়াদ

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ডাক্তার-নার্সে কৃতজ্ঞ রিয়াদ

ক্রীড়া ডেস্ক ৮:৫৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৮, ২০২০

print
ডাক্তার-নার্সে কৃতজ্ঞ রিয়াদ

যুদ্ধে সেনাবাহিনীর অবদান অনস্বীকার্য। এছাড়াও দুর্যোগ মুহূর্তে তাদের অবদান ভোলার নয়। কিন্তু এছাড়াও আরেক শ্রেণির লোক নিজেদের জীবন উৎস্বর্গ করে যান সে খবর রাখেন না কেউ। তারা হচ্ছে সেবক-সেবিকা। এরা না থাকলে যে অসুস্থ সৈনিকও সুস্থ হতে পারেন না। বর্তমান সময় এই সেবকরাই অকুতোভয়ে লড়ে যাচ্ছেন করোনা ভাইরাসের সঙ্গে। জীবন ঝুঁকি নিয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সেবা দিয়ে সুস্থ করে তুলছেন।

বাংলাদেশের সেবকরা তো আরও ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন। তাদের রয়েছে সরঞ্জামের অভাব। এই সীমাবদ্ধতার মধ্যে বাংলাদেশের ডাক্তার-নার্সরা সেবা করে যাচ্ছেন। এমন ধরনের সেবকদের কে না অভিনন্দন জানাবেন! তাই তো বাংলাদেশ ক্রিকেটের টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ কৃতজ্ঞতা জানাতে ভুল করেন নি। 

ফেইসবুকে ভিডিওবার্তায় তিনি তা প্রকাশও করেছেন, ‘একটা কথা না বললেই নয়, আমাদের ডাক্তারগণ, আমাদের নার্সরাও চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিত আছেন, সবাইকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। কোভিড-১৯ এর মতো এই দুর্যোগ সময়ে আপনারা যেভাবে এগিয়ে এসেছেন ও দেশকে সার্ভিস দিচ্ছেন, মন থেকে আপনাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি বিশ্বাস করি আপনাদের এই মহৎ কাজের জন্য অবশ্যই পুরস্কৃত হবেন ইনশাল্লাহ।’

তিনি আরও বলেন, ‘গতকাল রাতে একটি ভাবনা মাথায় এলো। অনেকে হয়তো এভাবে চিন্তা করতে পারি যে, আমরা এতদিন ধরে বাসায় আছি, দৈনন্দিন কাজ করছি বাসায় থেকে, টানা বাসায় থেকে একটু অবসাদ চলে আসতে পারে অনেকের। বিরক্তি লাগতে পারে। মনে হতে পারে, একটু বাসার নিচে যাই। কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলি। সামনের মোড় থেকে হেঁটে আসি। কারও মাথায় এ রকম চিন্তা এলে আমরা যেন তা ঝেরে ফেলি।’
‘এই মুহূর্তে বাসায় থাকাই সবচেয়ে নিরাপদ ও সময়ের দাবি। কারণ, যতটুকু এটা আমার ও পরিবারের জন্য, ততটুকু অন্যদের জন্যও প্রয়োজন। নিজে নিরাপদে থাকি, অন্যদেরও নিরাপদে রাখি।’

লোকজন ঘরে আটকা থাকায় দিনমজুর থেকে শুরু করে শ্রমজীবী মানুষরা যে কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হচ্ছেন, সেটি তুলে ধরে তাদের পাশে থাকার অনুরোধ করেছেন দেশের অন্যতম সেরা এই ক্রিকেটার।

‘একটা দিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে, যারা শ্রমজীবী মানুষ, এই মুহূর্তে হয়তো বেকার হয়ে পড়ছেন, তাদের পাশে দাঁড়ানো অনেক বেশি প্রয়োজন। আমরা চেষ্টা করব যে যার জায়গা থেকে এগিয়ে আসার ও সাহায্য করার।’